শিরোনাম
 নায়করাজ রাজ্জাক আর নেই  বন্যার্তদের জন্য অস্ট্রেলিয়ার সমবেদনা  রীড ফার্মা: স্বাস্থ্য সচিবকে হাইকোর্টে তলব  ৩৮ ঘণ্টা পর ঢাকার সঙ্গে উত্তর-দক্ষিণের ট্রেন চালু
প্রকাশ : ১২ আগস্ট ২০১৭, ২৩:০৫:৫২ | আপডেট : ১২ আগস্ট ২০১৭, ২৩:১৬:২২

সাজেকে আটকা পড়েছেন কয়েক’শ পর্যটক

নিজস্ব প্রতিবেদক,খাগড়াছড়ি
বাঘাইছড়ির বাঘাইহাট ও কাচালং এলাকায় বন্যার পানিতে সড়ক তলিয়ে যাওয়ায় সাজেকে ভ্রমণে যাওয়া কয়েক’শ পর্যটক আটকা পড়েছেন।

বাঘাইছড়ির সাজেক ইউনিয়নের বাঘাইহাট বাজার ব্যবসায়ি সমিতির সভাপতি মো. নাজিম উদ্দিন জানান, সাজেক সড়কের বাঘাইহাট এলাকা এবং সীমানাছড়া ব্রিজ এলাকা তলিয়ে যাওয়ায় সাজেকের সাথে সড়ক যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।

সাজেক ইউপি চেয়ারম্যান নেলশন চাকমা নয়ন জানান, কাচালংসহ বাঘাইহাট এলাকার প্রায় ১৫০ পরিবার পানিবন্দি রয়েছেন। তারা ইউনিয়ন পরিষদ, বাঘাইহাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও একতা যুবসংঘ ক্লাবে আশ্রয় নিয়েছে।

তিনি আরও জানান, শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে বাঘাইহাট-সাজেক সড়কের পাঁচ জায়গায় পাহাড় ধসে সড়ক বন্ধ হয়ে যাওয়ায় সাজেকে ভ্রমণে যাওয়া দেশের নানা জায়গার কয়েক’শ পর্যটকও ফিরতে পারছেন না। অবশ্য শুক্রবার রাত থেকেই সড়ক যোগাযোগ চালু করার জন্য সড়ক থেকে মাটি সরানোর কাজ করে যাচ্ছেন সড়ক ও জনপথ বিভাগের কর্মীরা।

এদিকে সড়ক বন্ধ থাকার কারণে শুক্রবার সাজেক গিয়ে আটকা পরেছে পর্যটবাহী কমপক্ষে ১২০টি গাড়ি।

সাজেকের হেডম্যান এল. থাঙা লুসাই জানান, যোগাযোগ সমস্যার কারণে পর্যটকদের খাবার ও ব্যবহার্য পানির সংকটও প্রকট আকার ধারণ করেছে। বৃষ্টির পানি থাকায় তা কিছুটা সামাল দেয়া যাচ্ছে। তবে যোগাযোগ ব্যবস্থা কয়েক দিনের মধ্যে স্বাভাবিক না হলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যেতে পারে।

সাজেক থানার ওসি নুরুল আনোয়ার জানান, পর্যটকদের প্রয়োজনীয় পানি এবং খাবারসহ অন্যান্য চাহিদা মেটাতে তারা সব ধরনের জরুরি ব্যবস্থা নিশ্চিত করবেন।

বাঘাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. তাজুল ইসলাম পানিবন্দী এলাকা ও সাজেক সড়ক বন্ধের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, পর্যটকদের সমস্যা বিবেচনায় রেখে সার্বিক সহযোগিতার চেষ্টা করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন
মন্তব্য
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved