শিরোনাম
 শোক মিছিলে হামলার পরিকল্পনা ছিল: আইজিপি  বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা  বঙ্গবন্ধু হত্যার ষড়যন্ত্রে রাঘব-বোয়ালরা জড়িত ছিল: প্রধান বিচারপতি  যতদিন খালেদা জিয়া ভুয়া জন্মদিন পালন করবেন, ততদিন সংলাপ নয়: কাদের
প্রকাশ : ২৩ জুলাই ২০১৭, ১৬:১৮:৩৮ | আপডেট : ২৩ জুলাই ২০১৭, ১৬:৩০:৫৭

কী অভিনয় করে দেখালেন জয়া: বিদ্যা বালান

অনলাইন ডেস্ক
ইন্দ্রনীল রায় চৌধুরী পরিচালিত ‘ভালোবাসার শহর’ ছবি দেখে মুগ্ধতার রেশই কাটছে না বলিউড অভিনেত্রী বিদ্যা বালানের। বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান অভীনিত ছবিটির ভীষণ প্রশংসা করেছেন বিদ্যা।
 
তিনি বলেন, ছবিটি দেখার পর কিছুক্ষণ বাকরুদ্ধ হয়ে ছিলাম, চুপ করে বসেছিলাম। ভেতরে-ভেতরে চলছিল একটা তীব্র অস্থিরতা। এ কোন পৃথিবীর দৃশ্য দেখলাম আমি। যুদ্ধবিধ্বস্ত হোমস শহরের ছবি আমাকে ঝাঁকুনি দিয়ে গেল। আমরা এখনও কতখানি অজ্ঞতা, কত দুর্বল স্মৃতি নিয়ে বসবাস করি এই পৃথিবীর বুকে। ভাবি, নিজেরা সেফ থাকলেই যথেষ্ট।
 
বাংলা ছবির প্রতি দুর্নিবার আকর্ষণের কথা জানালেন বিদ্যা বালান। তিনি বলেন, আমি বাংলা ছবির অন্ধ ভক্ত। বহু বাংলা ছবি আমি আজও দেখি। বাংলা আমার দ্বিতীয় ভাষা। আনন্দের শহর কলকাতা আমার সেকেন্ড হোম। ‘ভালোবাসার শহর’ দেখার ইচ্ছেটা সেই ভাষার জন্যে ভালোবাসা থেকেই।
 
'ভালোবাসার শহর' ছবিতে অন্নপূর্ণা দাসের চরিত্রে জয়া কী অপূর্ব অভিনয় করেছেন বলেও মন্তব্য করেন বিদ্যা বালান। 
 
তিনি বলেন, জয়া আহসান একটি সাধারণ মেয়ে, যে মুসলিম ছেলের ওপর ভরসা করে ঘর ছেড়েছিল, শহর ছেড়ে বহু দূর দেশ সিরিয়ার হোমস শহরে চলে গিয়েছিল। সেই দুঃসাহসী মেয়ের জীবনে নেমে এল অন্ধকার। যুদ্ধের সময়ে নিরুদ্দিষ্ট স্বামী, কোমাচ্ছন্ন ছোট্ট মেয়ে, বৃদ্ধ বাবাকে নিয়ে এক নারীর কী অসমসাহসী লড়াই দেখাল ‘ভালবাসার শহর’, বলে বোঝানোর ক্ষমতা নেই আমার! কী অভিনয় করে দেখালেন জয়া! 
 
জয়া আহসান অভিনীত প্রথম স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘ভালোবাসার শহর’। ৩০ মিনিটের এই ছবিটি গত ৩০ জুন ইউটিউবে মুক্তি পায়। সূত্র: এবেলা
 
আরও পড়ুন
মন্তব্য
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved