শিরোনাম
 রাজধানী ও কুষ্টিয়ায় 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত ৪  'রাজধানীতে বন্দুকযুদ্ধে নিহতরা এএসপি মিজান হত্যায় জড়িত'
প্রিন্ট সংস্করণ, প্রকাশ : ১৮ জুলাই ২০১৭

সেলফিবান্ধব অপোএফ৩ ব্ল্যাক

টেকলাইন প্রতিবেদক
বলা চলে সময় এখন স্মার্টফোন ক্যামেরার। প্রতিষ্ঠিত সব ব্র্যন্ডের স্মার্টফোনেই ক্যামেরাতে জোর দেওয়া হচ্ছে। এ তালিকায় পিছিয়ে নেই অপো। সম্প্রতি বাজারে এসেছে অপো এফথ্রি স্মার্টফোনের নতুন সংস্করণ অপো এফথ্রি ব্ল্যাক।

ক্যামেরা

অপোর প্রতিটি মডেলে ক্যামেরায় গুরুত্ব দেওয়া হয়। অপো এফ৩ ব্ল্যাকেও একইভাবে গুরুত্ব পেয়েছে এর ক্যামেরা। এর সামনে দেওয়া হয়েছে ১৬ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। না, একটি নয় সামনে রয়েছে দুটি ক্যামেরা। আরও একটি রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেল। যদি আপনি সেলফি স্টিক নিতে ভুলে যান, তাহলেও কোনো সমস্যা নেই। কারণ এই ক্যামেরায় ওয়াইড অ্যাঙ্গেল প্রযুক্তি রয়েছে। ফলে অনেকে মিলে ছবি তুলতে পারবেন। সম্প্রতি একশ' জনের একটি গ্রুপ ছবি প্রকাশ পেয়েছিল, যা অপো দিয়ে তোলা হয়েছিল। ক্যামেরার অ্যাপাচার এফ/২.২। ফলে কম আলোতে ভালো ছবি পাওয়া যাবে। এ ছাড়া রয়েছে প্যানারোমা মুড। ফলে একটি স্ন্যাপে অনেক বড় একটি জায়গার ছবি তোলা সম্ভব। এ ছাড়া রয়েছে বিউটি মুড এবং এইচডি মুড যা ভালো ছবির নিশ্চয়তা দেবে। তবে ব্লার করার অপশনটি মোটেও ক্যামেরার মধ্যে নেই। এটা সম্পূর্ণভাবে সফটওয়্যার দিয়েই করা হয়ে থাকে। তাই ডিএসএলআরের অপূর্ণতা এই ক্যামেরায় মেটানো সম্ভব নয়।

ডিজাইন

অপো এফ৩ ব্ল্যাক অপোর সিগনেচার প্রোডাক্ট এফ৩ প্লাসের অনুকরণে করা হয়েছে। ফোনটি অনেক স্লিম হওয়ায় সহজে পকেট বা হাতে বহন করতে পারবেন। ফোনটি প্রতিটি কোণ বাঁকানো হওয়ায় ধরতে অনেকে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করবেন।

ডিসপ্লে

ফোনটি ৫.৫ ইঞ্চি ফুল এইচডি রেজুলেশনের ডিসপ্লে হওয়ায় কোনো কিছু দেখতে অনেক কালারফুল মনে হবে। এতে গরিলা গ্গ্নাস৫ ব্যবহার করা হয়েছে। যদিও গরিলা গ্গ্নাস৫ লাগালে কোনো রকম স্ক্রাচ লাগবে না, কিন্তু তা বাস্তবিক নয়। তাই স্ক্রিন প্রোটেক্টর অবশ্যই লাগাবেন।

ব্যাটারি

ফোনটির ব্যাটারি ৩২০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার, ফলে এর কার্যক্ষমতাও অনেক। এক চার্জে আপনি অনেক কাজ করতে পারবেন। তা ছাড়া বার বার চার্জ দেওয়ারও ঝামেলা থাকছে না। ফোনটির সঙ্গে থাকা চার্জারটিতে ব্যবহার হয়েছে ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তি। ফলে আপনার ফোন খুব দ্রুত চার্জ হবে। ফোনটির সবচেয়ে ভালো দিক হলো অনেকক্ষণ ইন্টারনেট ব্যবহারেও গরম হবে না। যা ব্যবহারকারীর জন্য অনেক ভালো দিক।

হার্ডওয়্যার

অক্টা-কোর প্রসেসরের ফোনটিতে ব্যবহার হয়েছে অ্যান্ড্রোয়েড ৬.০ অপারেটিং সিস্টেম। যেখানে একই প্রযুক্তির ফোনে ব্যবহার হচ্ছে অ্যান্ড্রোয়েড ৭.০। ফোনটির সেন্সর বেশ দ্রুত কাজ করে এবং বিভিন্ন ফিচার এই সেন্সরের মাধ্যমে কাজ করা যায়।

স্টোরেজ

ফোনটিতে রয়েছে ৪ জিবি র‌্যাম এবং ৬৪ জিবি স্টোরেজ। ফলে বাড়তি মেমরির প্রয়োজন হবে না ব্যবহারকারীর। এ ছাড়া ১২৮ জিবি পর্যন্ত বাড়ানোর সুযোগ থাকছে। ব্যবহারকারী যদি গেম খেলতে পছন্দ করেন, তবে তার জন্য এটা উপযুক্ত ফোন হবে। বাধাহীনভাবে গেম এবং অ্যাপ চালাতে পারবেন তিনি।

বিশেষ ফিচার

এ ছাড়া ফোনে রয়েছে ব্লটুথ ৪.০ এবং ওয়াইফাই ৮০২.১১এ/বি/জি/এন। যা আপনার ওয়াইফাই বা ব্লুটুথ অনেক বেশি গতিশীল রাখবে। এ ছাড়া ফোনটি ওটিজি কেবল সাপোর্ট করবে। শুধু থ্রিজি নয়, এটি ফোরজিও সাপোর্ট করবে।

সাউন্ড

ফোনে সাউন্ড কোয়ালিটি বেশ ভালো। ফোন কল থেকে অ্যাপের মাধ্যমে কল বেশি ভালো শোনাবে। তবে কিছুটা সমস্যা রয়েই গেছে, যা তাদের হেডফোন। প্রথম অবস্থায় ভালো হলেও পরে আপনাকে কিছুটা হতাশ করবে। কোনটির মূল্য ২৫ হাজার ৯৯০ টাকা।
মন্তব্য
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved