শিরোনাম
 রাজধানী ও কুষ্টিয়ায় 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত ৪  'রাজধানীতে বন্দুকযুদ্ধে নিহতরা এএসপি মিজান হত্যায় জড়িত'
প্রকাশ : ১৭ জুলাই ২০১৭, ২২:১৮:৩৮

অবসর-কল্যাণের বর্ধিত চাঁদা প্রত্যাহারে শিক্ষক-কর্মচারী ঐক্যজোটের আলটিমেটাম

সমকাল প্রতিবেদক
এমপিওভুক্ত বেসরকারি স্কুল-কলেজ ও মাদ্রাসার শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন থেকে অবসর সুবিধা বোর্ড ও কল্যাণ ট্রাস্টের বর্ধিত চাঁদার গেজেট আগামী ২৩ জুলাইয়ের মধ্যে প্রত্যাহার না করা হলে কঠোর আন্দোলনের কর্মসূচি দেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে শিক্ষক-কর্মচারী ঐক্যজোট।

সোমবার রাজধানীর নয়াপল্টনের ৫৪, ইনার সার্কুলার রোডে সংগঠনটি আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলন থেকে এ কথা জানানো হয়। সংগঠনের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মো. সেলিম ভঁূইয়া এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন। উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় নেতা মো. জাকির হোসেন, অধ্যাপক মো. আলমগীর হোসেন, অধ্যক্ষ মো. সেলিম মিয়া, অধ্যাপক আবদুল হাকিম, কাজী মাঈনুদ্দিন, গোলাম হোসেন সোহেল, অধ্যক্ষ জয় রহমান, সাহাদাৎ হোসেন, মোল্লা নজরুল ইসলাম, আমজাদ হোসেন মোর্শেদ, মালা বেগমসহ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ।

অধ্যক্ষ মো. সেলিম ভূঁইয়া বলেন, ২০০২ সালে তৎকালীন সরকারের প্রধানমন্ত্রীর আন্তরিকতায় বেসরকারি শিক্ষকদের অবসর ভাতা চালু করা হয়। সরকার তখন অবসর সুবিধা বোর্ডে ৮৯ কোটি টাকা প্রদান করে এই সুবিধা চালু করে। পরে শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন থেকে কল্যাণ ট্রাস্টের জন্য ২ শতাংশ এবং অবসর ভাতার জন্য ৪ শতাংশ ধরে মোট ৬ শতাংশ শিক্ষকদের বেতন থেকে প্রতি মাসে কর্তন করার গেজেট প্রকাশ করা হয়। কিন্তু অবসর সুবিধা বোর্ড ও কল্যাণ ট্রাস্ট থেকে টাকা পেতে হলে এখন রাজনৈতিক পরিচয় লাগে। সরকারি দলের মন্ত্রী-এমপিদের সুপারিশে তারা আবেদন জমা দিয়েই টাকা নিয়ে যান। বিষয়টির আমরা তীব্র নিন্দা জানাই। এ অবস্থায় হঠাৎ করে অবসর সুবিধা বোর্ড ও কল্যাণ ট্রাস্টের জন্য ১০% চাঁদা কেটে নেওয়ার আদেশ জারি হয়। আমরা এই টাকা কেটে নেওয়ার সিদ্ধান্ত অবিলম্বে বাতিলের দাবি জানাচ্ছি।

সংবাদ সম্মেলন থেকে চাকরি জাতীয়করণ, ৫ শতাংশ বর্ধিত বেতন, বকেয়া বৈশাখী ভাতা প্রদান, রাজনৈতিক হয়রানি বন্ধ, পূর্ণাঙ্গ উৎসব ভাতা, নন এমপিও শিক্ষকদের এমপিওভুক্তকরণ, চাকরি জাতীয়করণসহ সব দাবি ২৩ জুলাইয়ের মধ্যে পূরণের আবেদন জানানো হয়। অন্যথায় ২৪ জুলাই থেকে মানববন্ধন, বিভিন্ন এলাকার সংসদ সদস্য, পেশাজীবী, অভিভাবক ও সুশীল সমাজের সঙ্গে মতবিনিময়সহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হবে বলে ঘোষণা দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন
মন্তব্য
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved