শিরোনাম
 কাবুলে গাড়িবোমা হামলায় নিহত ২৪  ৪১৮ যাত্রী নিয়ে প্রথম হজ ফ্লাইট ঢাকা ছেড়েছে  ভারি বৃষ্টির সাথে পাহাড় ধসের শঙ্কা, সাগরে ৩ নম্বর সংকেত  জর্ডানে ইসরায়েলি দূতাবাসে গুলি, নিহত ২
প্রকাশ : ১৬ জুলাই ২০১৭, ২১:৩৭:৩৫ | আপডেট : ১৬ জুলাই ২০১৭, ২৩:২১:২৬

জাবিতে ৪ শিক্ষার্থী আমরণ অনশনে, অসুস্থ ২

জাবি প্রতিনিধি
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) ৫৬ শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে প্রশাসনের দায়ের করা 'সন্ত্রাসী ও হত্যাচেষ্টা' মামলা প্রত্যাহার দাবিতে দুই শিক্ষার্থীর আমরণ অনশনের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন আরও দুই শিক্ষার্থী।

এদিকে, রোববার বিকেলে এক সিন্ডিকেট সভায় মামলা প্রত্যাহার না করার সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানান রেজিস্ট্রার আবু বকর সিদ্দিক। সন্ধ্যায় রেজিস্ট্রার স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে আন্দোলন ও অনশন বন্ধ করার নির্দেশ দেয়া হয়।

পরে রাতে এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে 'প্রতিবাদের নাম জাহাঙ্গীরনগর' ব্যানারে বিক্ষোভ মিছিল করে শিক্ষার্থীরা। মিছিলটি শহীদ মিনার থেকে শুরু হয়ে ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে শহীদ মিনারে এসে শেষ হয়। মিছিলে শাখা ছাত্র ইউনিয়ন সভাপতি ইমরান নাদিম, সম্পাদক জয়, ছাত্রফ্রন্টের আহ্বায়ক সুস্মিতা মরিয়ম, সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি শুভ্র প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

রোববার রাত ১১টায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় শহীদ মিনারের সামনে অনশনকারী শিক্ষার্থীরা হলেন—পূজা বিশ্বাস, সরদার জাহিদ, তাহমিনা জাহান ও খান মুনতাছির আরমান। সন্ধ্যার দিকে পূজা ও জাহিদ অসুস্থ হয়ে পড়ায় তাদের স্যালাইন দেয়া হয়।

এর আগে শনিবার রাত ১১টার দিকে ইংরেজি বিভাগের ৪২তম আবর্তনের শিক্ষার্থী তাহমিনা এবং রোববার সকাল ৭টায় আইন ও বিচার বিভাগের ৪৩তম আবর্তনের শিক্ষার্থী আরমান অনশনে যোগ দেন। বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা তাদের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করেছেন।

শনিবার বিকেলে ইংরেজি বিভাগের ৪২তম ব্যাচের শিক্ষার্থী জাহিদ ও আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের ৪০তম ব্যাচের শিক্ষার্থী পূজা বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারে আমরণ অনশনে বসেন।

রোববার রাতে শিক্ষক-শিক্ষার্থী ঐক্য মঞ্চের নেতারা অনশন তুলে নেয়ার অনুরোধ করেন। কিন্তু অনশনকারী শিক্ষার্থী পূজা ও জাহিদ অনড় অবস্থান ব্যক্ত করেন। তারা বলেন, মামলা প্রত্যাহার না হওয়া পর্যন্ত এখান থেকে জীবন নিয়ে ফিরতে চাই না।

এদিকে, প্রক্টরিয়াল বডি অনশনকারীদের সার্বক্ষণিক নিরাপত্তার ব্যবস্থা নিশ্চিত করেছে। সহকারী প্রক্টর মেহেদী ইকবাল বলেন, 'আমরা অনশন চলাকালীন সময়ে সার্বক্ষণিক অবস্থান করব।'

তবে অনশনকারীরা উপাচার্যের আশ্বাস না পেলে আমরণ অনশন চালিয়ে যাওয়ার কথা বললেও রাত পর্যন্ত উপাচার্য তাদের সঙ্গে দেখা বা কোন ধরনের যোগাযোগ করেননি।

উল্লেখ্য, গত ২৬ মে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যু পর বিভিন্ন দাবিতে শিক্ষার্থীদের মহাসড়ক আবরোধকালে পুলিশ হামলা চালায়। হামলায় সাংবাদিকসহ অন্তত ১০-১২ জন আহত হয়। পরে বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থীরা উপাচার্যের বাসায় অবস্থান ও ভাংচুর চালালে ২৭ মে রাতে ৫৬ শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী হামলা ও হত্যাচেষ্টার মামলা করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

আরও পড়ুন
মন্তব্য
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved