শিরোনাম
 ওসমানীতে সাড়ে ৩ কেজি স্বর্ণ উদ্ধার  বরিশাল আদালতের ৬ পুলিশ প্রত্যাহার  হিমছড়িতে পাহাড়ধসে ঢাবি শিক্ষার্থীর মৃত্যু
প্রকাশ : ১৬ জুলাই ২০১৭, ১৮:০৩:৪৯ | আপডেট : ১৬ জুলাই ২০১৭, ১৮:৩১:৪৬

'রাজা'য় কলম্বো জয়ের স্বপ্ন দেখতেই পারে জিম্বাবুয়ে

অনলাইন ডেস্ক
কলম্বো টেস্টে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ১০ রানের লিড পাওয়ার পর দারুণ কিছুর স্বপ্ন নিয়েই দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নেমেছিল জিম্বাবুয়ে। কিন্তু ৬০ রান না তুলতেই ৫ উইকেট হারিয়ে সেই স্বপ্ন মিইয়ে যেতে শুরু করে। এরপরই ম্যাচে নাটকীয় মোড় নেয়। সিকান্দার রাজা, পিটার মুর এবং ম্যালকম ওয়ালাররা শ্রীলঙ্কান বোলারদের সামনে চীনের প্রাচীর হয়ে দাঁড়ান। এই তিনজনের দৃঢ়তায় কলম্বো টেস্টে জয়ের স্বপ্ন দেখতেই পারে ২৬২ রানের লিড নেয়া সফরকারীরা।

প্রথম ইনিংসে জিম্বাবুয়ের করা ৩৫৬ রানের জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে ৩৪৬ রানে গুটিয়ে যায় শ্রীলঙ্কা। ১০ রানের লিড নিয়ে ব্যাটিংয়ে নেমে ৫৯ রানেই ৫ উইকেট হারিয়ে বেশ চাপের মুখে পড়ে যায় গ্রায়েম ক্রেমারের দল। কিন্তু এরপর রাজা, মুর এবং ওয়ালারের লড়াকু ব্যাটিংয়ে দিন শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে ২৫২ রান তোলে স্বস্তিতেই রয়েছে জিম্বাবুয়ে। ৪ উইকেট হাতে রেখে এখন সফরকারীদের লিড ২৬২ রানের।

টেস্ট ক্রিকেটে হতশ্রী অবস্থাই ছিল জিম্বাবুয়ের। কিন্তু শ্রীলঙ্কার মাটিতে ৩-২ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজ জয়ই যেন দলটিকে আমুল বদলে দিল। প্রায় দেড় যুগ পর বাংলাদেশ ছাড়া অপর কোনো প্রতিপক্ষের বিপক্ষে একই টেস্টে জিম্বাবুয়ের একাধিক ব্যাটসম্যান সেঞ্চুরির দেখা পেলেন। ২০০০ সালে ভারতের বিপক্ষে দুই ফ্লাওয়ার  ভাই অ্যান্ডি ও গ্রান্ট এবং অ্যালিস্টার ক্যাম্পবেল সেঞ্চুরি করেছিলেন।

দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নেমে রঙ্গনা হেরাথের বোলিং তোপে পড়ে ৬০ রানে না পৌঁছতেই ৫ উইকেট হারিয়ে ধুঁকছিল জিম্বাবুয়ে। ষষ্ঠ উইকেটে রাজা ও মুর মিলে ৮৬ রানের দারুণ জুটি গড়লে স্বস্তি ফেলে সফরকারী শিবিরে।

দলীয় ১৪৫ রানের মাথায় মুর আউট হয়ে ফিরে গেলেও দিনের বাকি সময়টুকু ছিল শ্রীলঙ্কান বোলারদের হতাশার গল্প। রাজা ও ওয়ালার মিলে ১৬১ বলে ১০৭ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়ে দলকে জয়ের স্বপ্নই দেখাচ্ছেন।

জিম্বাবুয়ের হয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে মুর ৪০ রানের দায়িত্বশীল ইনিংস খেলে আউট হন। রাজা ৯৭ এবং ওয়ালার ৫৭ রানে অপরাজিত রয়েছেন। প্রথম ইনিংসে ১৫০ প্লাস রান করা ক্রেইগ আরভিন ২২ রান করলেও হ্যামিল্টন মাসাকাদজা (৭), রেজিস চাকাভা (৬), তারিসাই মুসাকান্দা (০) ও ক্রেইগ আরভিন (৫) ব্যর্থতার পরিচয় দেন।

প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসেও শ্রীলঙ্কার সফলতম বোলার হেরাথ। ৭৯ রানে চারটি উইকেট নিয়েছেন এই লঙ্কান স্পিনার। এছাড়া দিলরুয়ান পেরেরা ও লাহিরু কুমারা একটি করে উইকেট নেন।

এর আগে রোববার ৭ উইকেটে ২৯৩ রান নিয়ে ব্যাটিংয়ে নামে শ্রীলঙ্কা। দিনের প্রথম ঘণ্টায় আরো ৪৯ রান তোলে শেষ তিনটি উইকেট হারিয়ে গুটিয়ে যায় স্বাগতিকরা।

শ্রীলঙ্কার হয়ে থারাঙ্গা সর্বোচ্চ ৭১ রান করেন। এছাড়া চান্দিমাল ৫৫, গুনারত্নে ৪৫, ম্যাথুজ ৪১, করুনারত্নে ২৫, হেরাথ ২২ এবং পেরেরা করেন ৩৩ রান। ১৯ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়া গুনারত্নে ২৪ এবং হেরাথ ৫ রান নিয়ে অপরাজিত রয়েছেন।

জিম্বাবুয়ের হয়ে গ্রায়েম ক্রেমার সর্বোচ্চ পাঁচটি উইকেট নেন। এছাড়া সিন উইলিয়ামস দুটি ও ডোনাল্ড তিরিপানো একটি উইকেট নেন। কুশল পেরেরার পাশাপাশি থারাঙ্গাও রানআউটের শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন।

প্রথম ইনিংসে জিম্বাবুয়ের ৩৫৬ রানের চ্যালেঞ্জিং সংগ্রহের নায়ক আরভিন। ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় টেস্ট সেঞ্চুরি করা আরভিন ১৬০ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলেন। তার ২৫৬ বলের ইনিংসটি ১৩টি চার ও ১টি ছক্কায় সাজানো ছিল। এছাড়া জিম্বাবুয়ের দলে  সিকান্দার রাজা ৩৬, তিরিপানো ২৭, ম্যালকম ওয়ালার ৩৬ এবং সিন উইলিয়ামস করেন ২২ রান।

শ্রীলঙ্কার সফলতম বোলার রঙ্গনা হেরাথ। ১১৬ রানের বিনিময়ে ৫ উইকেট নেন এই লঙ্কান স্পিনার। এছাড়া আসেলা গুনারত্নে এবং লাহিরু কুমারা দুটি করে ও দিলরুয়ান পেরেরা নেন একটি উইকেট।

আরও পড়ুন
মন্তব্য
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved