শিরোনাম
 রাজধানী ও কুষ্টিয়ায় 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত ৪  'রাজধানীতে বন্দুকযুদ্ধে নিহতরা এএসপি মিজান হত্যায় জড়িত'
প্রকাশ : ১১ জুলাই ২০১৭, ০৮:৫৭:০৯

ভাতিজিকে হত্যা করে চাচার আত্মহত্যা

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি
ময়মনসিংহের গৌরীপুরে ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী ভাতিজি জান্নাতুল বেগমকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে চাচা মিজানুর রহমান আত্মহত্যা করেছেন।

সোমবার রাত সাড়ে ৭ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার মইলাকান্দা ইউনিয়নের মইলাকান্দা গ্রামের কান্দাপাড়া মহল্লার মোহাম্মদ আলীর ছেলে শাহজাহান মিয়ার দুই মেয়ের মধ্যে জান্নাতুল বেগম বড়। সে শ্যামগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ে ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ালেখা করে। সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টার দিকে কিছু চাল নিয়ে বাড়িতে যায় জান্নাতুলের চাচা মিজানুর রহমান। সেই চাল মিজান তার ভাবি আরজিনা খাতুনকে রান্না করতে বলেন। দেবরের আনা চাল রান্না করতে গেলে আরজিনার পাশে বসে চাচা মিজান। পরে তিনি পড়ার টেবিলে বসা জান্নাতুলকে ধারালো ছুরি দিয়ে বুকের আঘাত করতে থাকে। জান্নাতুল চিৎকার করে মাটিতে লুটিয়ে পড়লে ছুটে আসেন মা। রক্তাক্ত মেয়েকে নিয়ে ছুটে যান গৌরীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। কিন্তু সেখানে নেওয়ার পর চিকিৎসক জান্নাতুলকে মৃত ঘোষণা করেন। এদিকে ভাতিজিকে হত্যার পর মিজান সেই ছুড়ি দিয়ে নিজের গলা কেটে আত্মহত্যা করেন। ভাতিজিকে হত্যার পর চাচার আত্মহত্যার খবরে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। আশপাশের লোকজন ছুটে যান নিহতদের বাড়িতে। খবর পেয়ে গৌরীপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিহত কিশোরী জান্নাতুল ও চাচা মিজানের লাশ বাড়ি থেকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যান।

মইলাকান্দা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রিয়াদুজ্জামান রিয়াদ জানান,  নিহতের পরিবারের সাথে কথা বলে তিনি জানতে পেরেছেন, দারিদ্র্যের কারণে মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ছিল মিজানুর রহমান। স্ত্রীকে মারধর করায় প্রায় এক মাস আগে সে ঢাকায় পোশাক কারখানায় চলে।

কিছুদিন ধরে স্ত্রীকে ফিরিয়ে এনে দিতে বড় ভাইকে চাপ দিতে থাকে মিজান। কিন্তু ছোট ভাইয়ের পাগলামির কারণে স্ত্রীকে এনে দিতে রাজী হচ্ছিল না শাহজাহান। এতে বড় ভাইয়ের প্রতি ক্ষোভ থেকে মিজান তার ভাতিজিকে হত্যা করে নিজে আত্মহত্যা করেছে বলে ধারনা তার।

গৌরীপুর থানার ওসি মো. দেলোয়ার আহম্মেদ বলেন, ভাতিজিকে ছুরিকাঘাতে হত্যার পর চাচা আত্মহত্যা করেছে। চাচা মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ছিলো বলে তথ্য পাওয়া গেছে। নিহতদের লাশ উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে।

আরও পড়ুন
মন্তব্য
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved