শিরোনাম
 সিদ্দিকুরকে চেন্নাই নেয়া হচ্ছে  ইতিহাস সংস্কৃতিকে তুলে ধরে উন্নত চলচ্চিত্র নির্মাণ করুন: প্রধানমন্ত্রী  সীতাকুণ্ডের ত্রিপুরা পাড়ার আরেক শিশুর মৃত্যু  সংবিধানিক অধিকারকে খাঁচায় বন্দি রেখেছে সরকার: রিজভী
প্রিন্ট সংস্করণ, প্রকাশ : ২০ মে ২০১৭, ০১:৩৩:৩৭

মানব পাচার ঠেকাতে নতুন কর্মপরিকল্পনা

ফসিহ উদ্দীন মাহতাব

মানব পাচার প্রতিরোধ ও দমনে কঠোর অবস্থান নিয়েছে সরকার। পাচার ঠেকাতে আগে থেকেই স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিশেষ কর্মপরিকল্পনা ছিল। তাতে 'ফাঁক' থাকায় অনেক ক্ষেত্রেই কাজে আসছিল না। সেই ফাঁকগুলো চিহ্নিত করে আবারও তিন বছরের বিশেষ কর্মপরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। তা বাস্তবায়নে ৪৫টি উপায় নির্ধারণ করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট শাখা। মন্ত্রণালয়ের শীর্ষ কর্মকর্তারা আশা প্রকাশ করে বলেছেন, বিশেষ কর্মপরিকল্পনার পুরোপুরি বাস্তবায়নে এবার মানব পাচার প্রতিরোধ ও দমন সম্ভব হবে।

এ বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল সমকালকে বলেন, মানব পাচার রোধে আমরা জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরণ করছি। সে জন্য সব ধরনের ব্যবস্থাও নেওয়া হচ্ছে। বিশেষ কর্মপরিকল্পনায় পাচার ঠেকাতে কয়েকটি বিষয় নির্দিষ্ট করে প্রস্তাব আকারে উপস্থাপন করা হয়েছে। তা কার্যকর করতে সংশ্লিষ্টরা কার্যকর পদক্ষেপ নেবেন। এ ছাড়া স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠ্যসূচিতে মানব পাচার ও অভিবাসন-সংক্রান্ত বিষয়গুলো অন্তর্ভুক্তির করার কথাও কর্মপরিকল্পনা রয়েছে বলে জানান তিনি।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, নেপালের কাঠমান্ডুতে অবস্থিত দক্ষিণ এশীয় আঞ্চলিক সহযোগিতা সংস্থার (সার্ক) সচিবালয়ে মানব পাচার-সংক্রান্ত পর্যবেক্ষণ ও মূল্যায়ন ডেস্ক স্থাপনের বিষয়টি কর্মপরিকল্পনায় গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দেশের সঙ্গে সংলাপ আয়োজন করার পাশাপাশি কেন্দ্রীয়ভাবে ও জেলা পর্যায়ে বিশেষ তহবিল গঠন করা হবে। এ ছাড়া প্রতিরোধ ও পাচারের শিকার ব্যক্তিদের সুরক্ষা, বিচার, মানব পাচারের বিরুদ্ধে লড়াই করতে অংশীদারিত্ব, অংশগ্রহণ এবং আন্তঃরাষ্ট্রীয় আইনগত সহযোগিতা, তদারক ও মূল্যায়ন প্রতিবেদন তৈরি করা হবে।

ওই সূত্র আরও জানায়, এ-সংক্রান্ত অপরাধের বিচারে মানব পাচার প্রতিরোধ ও দমন আইন ২০১২ অনুযায়ী বিশেষ ট্রাইব্যুনাল গঠনের প্রস্তাব করা হয়েছে। মামলার তদারকি ও প্রতিবেদন দাখিল, পারস্পরিক আইনি সহায়তার চুক্তি ও আন্তর্জাতিক সনদ অনুসমর্থন, পাচারসহ সংঘবদ্ধ অপরাধের ওপর আঞ্চলিক টাস্কফোর্সের জন্য সংলাপ, আইন প্রয়োগকারী সংস্থা, সরকারি কেঁৗসুলি ও মামলার তদন্ত, বিচারকাজের জন্য প্রশিক্ষণ এবং পাচারের শিকার ব্যক্তি ও সাক্ষীর সুরক্ষা বিধানে কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়ার পরিকল্পনাও গ্রহণ করা হয়েছে। পাচারের শিকার ব্যক্তির সুরক্ষা ও ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে তাদের চি?িহ্নতকরণ, উদ্ধার, প্রত্যাবাসন, পুনর্বাসন, মনস্তাত্তি্বক ও আইনি সহায়তা প্রদান; সামাজিক ও পারিবারিকভাবে একত্রকরণ কর্মসূচি নেওয়া হবে। সুরক্ষা বিধানের সময় পাচারের শিকার ব্যক্তি যেন আবারও কোনো ক্ষতির শিকার না হয় তা সরকারি সংস্থাগুলোর মাধ্যমে নিশ্চিত করা হবে। পাচারের শিকার ব্যক্তি ট্রানজিট বা গন্তব্য দেশের কোথাও যেন আটক না থাকে অথবা অভিযুক্ত হয়ে বিচারের মুখোমুখি না হন তাও সরকারি সংস্থা ও অন্যদের মাধ্যমে নিশ্চিত করা হবে। বাংলাদেশ থেকে অভিবাসীদের চলাচল পর্যবেক্ষণ করতে বহির্গমন পয়েন্টগুলোয় অনলাইনে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পাশাপশি অভিবাসী ও পাচার হওয়া ব্যক্তিদের জন্য গন্তব্যের দেশগুলোয় অন্তর্বর্তী আশ্রয়কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা, জেলা আইনি সহায়তা কমিটির অধীনে অভ্যন্তরীণ ও আন্তঃমানব পাচার-সংক্রান্ত মামলার জন্য তহবিলে বরাদ্দ, থানায় ভিকটিম, সাক্ষী সুরক্ষা ও প্রত্যেক থানায় অন্তত একজন পুলিশ কর্মকর্তাকে সুরক্ষা কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হবে।

কর্মপরিকল্পনায় আরও বলা হয়েছে_মানবপাচার প্রতিরোধ, সচেতনতা ও জনসম্পৃক্ততা বাড়াতে একটি পুস্তিকা প্রণয়ন করা হবে। বিভিন্ন সংস্থার কার্যক্রম সমন্বয় ও তথ্য আদান-প্রদানের জন্য মানব পাচারবিরোধী বিদ্যমান ডাটাবেজ ও ওয়েবসাইটগুলোও সমৃদ্ধ করা হবে। মানব পাচার ও অভিবাসনের ওপর বিশ্ববিদ্যালয়গুলোয় সুনির্দিষ্ট কোর্স চালু করা হবে। মানব পাচার রোধ ও নিরাপদ অভিবাসন সম্পর্কে সচেতনতা তৈরিতে সেমিনার, নাটক, উঠান বৈঠক, লোকসঙ্গীত, চলচ্চিত্র প্রদর্শনী, এলাকাভিত্তিক সভা ও শোভাযাত্রার আয়োজন করা হবে। এ ছাড়া পাচারপ্রবণ সীমান্তবর্তী ও সমুদ্র উপকূলবর্তী এলাকাগুলোর ক্ষেত্রে জরুরিভিত্তিতে পাচারনিরোধী কমিটিগুলোকে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করতে হবে। মানব পাচার দমনে জাতীয় কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়নে সরকারি ও বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা এবং জাতিসংঘের সংস্থাগুলোর সঙ্গে সমন্বিতভাবে কাজ করতেও সুস্পষ্ট দিকনির্দেশনা দেওয়া হবে।

মন্তব্য
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved