শিরোনাম
 যুক্তরাজ্যে কনসার্টে বিস্ফোরণে নিহত ১৯, আহত ৫০  ঘুষ ছাড়া কাজই হয় না পল্লী বিদ্যুতে  ওসি ফরমানসহ তিন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থার সুপারিশ
প্রিন্ট সংস্করণ, প্রকাশ : ২০ মে ২০১৭ | আপডেট : ২০ মে ২০১৭, ১০:৫১:০১
সাক্ষাৎকার

ব্যবসার সহায়ক পরিবেশ গড়ে তুলব

সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন
সাক্ষাৎকার গ্রহণ :আবু হেনা মুহিব

ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআইর সভাপতি পদে নির্বাচিত হয়েছেন সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন। সভাপতি পদে তার প্রার্থিতা ঘোষণার পর আর কেউ এ পদে প্রার্থী হননি। ফলে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় তিনি সভাপতি নির্বাচিত হন। পোশাক খাতের এ উদ্যোক্তা এর আগে বিজিএমইএর সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। তার মেয়াদেই তাজরীন ফ্যাশনে অগি্নকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনায় গভীর সংকটে পড়া পোশাক খাতের ভাবমূর্তি পুনরুদ্ধারে সফল হন। আগামীকাল রোববার আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব বুঝে নেবেন তিনি। বৃহস্পতিবার সমকালের সঙ্গে এফবিসিসিআই নিয়ে তার ভাবনা ও ব্যবসার সার্বিক পরিবেশসহ বিভিন্ন বিষয়ে কথা বলেন তিনি

সমকাল :ব্যবসায়ীদের সবচেয়ে বড় সংগঠন এফবিসিসিআইর সভাপতি নির্বাচিত হওয়ায় সমকালের পক্ষ থেকে আপনাকে অভিনন্দন।

সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন :আমার পক্ষ থেকে সমকালকে ধন্যবাদ। বিজিএমইএর সভাপতির দায়িত্ব পালনের সময়ও আমি সমকালের সহযোগিতা পেয়েছি। আশা করি, এফবিসিসিআইর সভাপতির দায়িত্ব পালনকালেও একইভাবে সমকালসহ গণমাধ্যমের সহযোগিতা পাব।

সমকাল :ব্যবসায়ীদের অভিভাবক সংগঠন হিসেবে এফবিসিসিআই নিয়ে আপনার পরিকল্পনা জানতে চাই।

সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন :এফবিসিসিআইর কাছে উদ্যোক্তাদের প্রত্যাশা কী, সেটা আমাদের জানা আছে। সেই প্রত্যাশা পূরণে শিল্প-বাণিজ্যের জন্য অনুকূল পরিবেশ তৈরি করতে চাই আমি। এ জন্য বিদ্যমান প্রতিবন্ধকতা দূর করতে চেষ্টা করব। সরকারের সঙ্গে অংশীদারিত্ব প্রতিষ্ঠা, সংশ্লিষ্ট নীতি সংস্কারের উদ্যোগ, অ্যাডভোকেসিসহ যা করণীয়, সবই করতে চাই। অসাধু ব্যবসায়ীরা যাতে কোনো রকম কারসাজি করতে না পারে সে ব্যাপারে আমাদের বিশেষ নজর থাকবে।

সমকাল :আপনার প্রধান ৫ অগ্রাধিকার কী হবে?

সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন : শিল্প উৎপাদনে বিশেষায়িত অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলো (ইজেড) যাতে দ্রুত বিনিয়োগযোগ্য করে তোলা যায় সে বিষয়ে আমাদের প্রচেষ্টা থাকবে। শহর থেকে শিল্প স্থানান্তরে বিদ্যমান জটিলতা দূর করাও গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু। গ্যাস-বিদ্যুৎসহ বিনিয়োগ সহায়ক সব ধরনের অবকাঠামো নিশ্চিত করা, ব্যবসার পরিবেশ নিরুপদ্রব রাখা, দ্রব্যমূল্য স্থিতিশীল রাখার প্রচেষ্টা- এ রকম অনেক পরিকল্পনাই আছে আমাদের সামনে।

সমকাল :নির্বাচনী প্রতিশ্রুতিতে আপনি বলেছেন, এফবিসিসিআইর হারানো গৌরব ফিরিয়ে আনবেন। এফবিসিসিআইর কোন গৌরব কীভাবে হারাল- ব্যাপারটা একটু পরিষ্কার করে বলবেন?

সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন :দেশের উন্নয়নে সবচেয়ে বড় জোগানদাতা ব্যবসায়ীরা। আমরা সাধারণত রাজস্ব কিংবা কর্মসংস্থানের কথা বলি। এর বাইরে ব্যাংক-বীমা, পরিবহনসহ সব ধরনের সেবা খাত চলছে উদ্যোক্তা ও ব্যবসায়ীদের কঠোর শ্রমে। অথচ অর্থনীতির প্রধান পৃষ্ঠপোষক ব্যবসায়ীদের সম্মান ও মর্যাদা দেওয়ার প্রশ্নে সুবিচার করা হয়নি। আমরা চাইব, ব্যবসায়ীরা যথাযথ মর্যাদা ভোগ করবেন।

সমকাল :এটাও তো অসত্য নয় যে, ব্যবসায়ীদের মাঝে কর, ভ্যাট ফাঁকি দেওয়ার প্রবণতা বিদ্যমান। কিছু অসাধু ব্যবসায়ীর মূল্য কারসাজির কারণে সরকারকে প্রায়ই বেকায়দায় পড়তে হয়। নাকাল হতে হয় সাধারণ ভোক্তাদের। বিশেষ করে নিত্যপণ্যের বেলায় এ রকম ঘটনা বেশি ঘটে।

সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন :অনিয়ম, দুর্নীতি, কর ফাঁকি, ভ্যাট ফাঁকি কিংবা মূল্য কারসাজি- কোনো ধরনের অনিয়মকে প্রশ্রয় দেবে না এফবিসিসিআই। অনিয়ম প্রতিরোধ ও দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে সরকারকে সর্বোচ্চ সহযোগিতা দিতে চাই আমরা। দ্রব্যমূল্যের কথা আমি বিশেষভাবে বলতে চাই। এ মুহূর্তে সব ধরনের নিত্যপণ্যের পর্যাপ্ত মজুদ আছে। সামনে রমজানেও কোনো সমস্যা হবে না। ব্যবসায়ীদের মধ্যে কেউ যাতে কৃত্রিম সংকট তৈরি করে বাজার অস্থির করতে না পারে, সে বিষয়ে আমরা নজরদারির ব্যবস্থা নেব।

সমকাল :আপনার নেতৃত্বে এফবিসিসিআইর মাধ্যমে ক্ষুদ্র উদ্যোক্তারা কী সুবিধা পাবেন?

সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন :অবশ্যই ক্ষুদ্র-মাঝারি শিল্পকে ঘিরে আমাদের বিশেষ ভাবনা থাকবে। মূলত এ আকারের শিল্পগুলোই আমাদের অর্থনীতির মেরুদণ্ড। এদের সব ধরনের সহযোগিতা দিতে আমরা উদ্যোগ নেব। গবেষণা ও উন্নয়ন, প্রশিক্ষণ এবং প্রযুক্তি সহায়তা দেওয়া হবে, যাতে এসব উদ্যোক্তা তাদের কষ্টের বিনিয়োগের সর্বোচ্চ সদ্ব্যবহারটুকু করতে পারেন। পিছিয়ে পড়া যেসব সংগঠন বিভিন্ন শর্ত প্রতিপালন, অডিট কিংবা কাঠামোর দিক থেকে দুর্বল, সেগুলোর সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য প্রচেষ্টা নেব, যাতে এসব সংগঠনও মূলধারায় উঠে আসতে পারে।

সমকাল :এফবিসিসিআইর সরাসরি নির্বাচন নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে নেতারা প্রতিশ্রুতি দিয়ে আসছেন। এ বিষয়ে আপনার পদক্ষেপ কী হবে?

সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন : আমরা এফবিসিসিআইর মধ্যে সুষম নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠা করতে চাই। সরাসরি ভোটে নেতা নির্বাচন বিষয়ে একটি খসড়া করছে সরকার। এফবিসিসিআইর সাবেক সভাপতি সালমান এফ রহমানের নেতৃত্বে একটি প্রস্তাব বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে জমা দেওয়া হয়েছে। আমি আশা করি, এফবিসিসিআইর নতুন কমিটির মেয়াদেই সরাসরি ভোটের ব্যবস্থা কার্যকর হবে।

সমকাল :ভ্যাট আইন নিয়ে ব্যবসায়ীদের দাবির মুখে কিছুটা ছাড় দিতে রাজি হয়েছে সরকার। মূল্য সংযোজন করহার এখন সাড়ে ১২ শতাংশ করার কথা শোনা যাচ্ছে। আপনারা কি এখনও ৭ থেকে ১০ শতাংশের দাবিতে অনড়?

সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন :ভ্যাট আইন নিয়ে অনেক আলোচনা-সমালোচনা হয়েছে। আমার বিশ্বাস, বর্তমান সরকার জনগণের সরকার। ভ্যাটের কারণে সাধারণ জনগণ ও ব্যবসায়ীরা সংকটে পড়েন- এমন কোনো সিদ্ধান্ত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কিংবা অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, কেউই চান না। শেষ পর্যন্ত একটা গ্রহণযোগ্য সমাধান হবে। দেখা যাক।

সমকাল :ব্যবসা-বাণিজ্য পরিচালনার পরিবেশ সংক্রান্ত বিশ্বব্যাংকের সর্বশেষ ডুয়িং বিজনেস রিপোর্টে বলা হয়েছে, বিদ্যুতের মতো গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামো প্রাপ্তির সূচকে বিশ্বের ১৮৯ দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ১৮৯তম। অর্থাৎ সব দেশের পেছনে। অন্য সব সেবা মিলে বাংলাদেশের অবস্থান ১৭৬তম। এ রকম প্রতিকূলতায় বিনিয়োগ পরিবেশ উন্নয়নে আপনার ভাবনা কী?

সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন :এ রকম প্রতিকূলতা আমাদের ব্যবসা-বাণিজ্যের বাস্তবতা। তবে আমার জানামতে, সরকার বিনিয়োগ পরিবেশ উন্নয়নকে অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছে। এ উদ্দেশ্যেই সাবেক বিনিয়োগ বোর্ড এবং প্রাইভেটাইজেশন কমিশনকে একীভূত করে বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ নামে আলাদা একটা কর্তৃপক্ষ গঠন করা হয়েছে, সংক্ষেপে যাকে বিডা বা বাইডা বলা হয়। আমার জানামতে, এই কর্তৃপক্ষের গতিশীল নেতৃত্ব বিনিয়োগ পরিবেশ উন্নয়নে মহাপরিকল্পনা নিয়ে কাজ করছে। এফবিসিসিআইর সভাপতিও বিডার পরিচালনা বোর্ডের সদস্য। ইতিমধ্যে পরিস্থিতির কিছুটা অগ্রগতি আমরা দেখতে পাচ্ছি। এফবিসিসিআইর পক্ষ থেকে বিডার প্রচেষ্টায় আমাদের সব ধরনের সহযোগিতা থাকবে । আশা করি, দেশে ব্যবসা-বাণিজ্যের সহায়ক পরিবেশ তৈরি হবে।


মন্তব্য
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved