শিরোনাম
 ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে হাইড্রোলিক হর্ন বন্ধের নির্দেশ  এমপি রানাকে বিচারিক আদালতে হাজির করার নির্দেশ  অন্তিম শয়ানে নায়করাজ
প্রকাশ : ১৯ মে ২০১৭, ২২:৪১:১৫

বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িকতার স্থান নেই: প্রধান বিচারপতি

চট্টগ্রাম ব্যুরো ও বাঁশখালী প্রতিনিধি
প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বলেছেন, ‘বাংলাদেশ হচ্ছে শতভাগ গণতান্ত্রিক দেশ। যেখানে নব্বই ভাগ মুসলিম সম্প্রদায় হয়েও আমাদের মতো সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের লোককে প্রধান বিচারপতির মতো মহান দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। প্রত্যেক ধর্মই শান্তির কথা বলে। এ দেশে সাম্প্রদায়িকতার কোনো স্থান নেই।’

তিনি আরও বলেন, ‘জাতির জনকের স্বপ্নের দেশ আজ অনেকাংশে এগিয়ে গেছে। কিছু অতি উৎসাহী লোক ধর্মের নামে সাধারণ জনগণকে বিপথে পরিচালিত করে দেশে নৈরাজ্য সৃষ্টি করার চেষ্টা করছে। সে ব্যাপারে শুধু পুলিশ ও প্রশাসন নয়, জনগণকে সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে।’

শুক্রবার চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার কালীপুরের কোকদণ্ডী ঋষিধামে যুগাবতার শিবকল্পতরু শ্রীমৎ স্বামী অদ্বৈতানন্দ পুরী মহারাজের ১১৫তম আবির্ভাব তিথি ও পুনঃনির্মিত শ্রীগুরু মন্দিরের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন প্রধান বিচারপতি।

অনুষ্ঠানে পৌরহিত্য করেন ঋষিধামের মোহন্ত মহারাজ শ্রীমৎ স্বামী সুদর্শানানন্দ পুরী মহারাজ। শ্রীগুরু সংঘের সভাপতি লায়ন প্রফুল্ল রঞ্জন সিংহের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাঁশখালীর এমপি মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী ও বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী।

রাউজান পৌর মেয়র দেবাশীষ পালিতের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অতিথির বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম জেলা ও দায়রা জজ মো. হেলাল চৌধুরী, মহানগর দায়রা জজ মো. শাহেনুর, চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুন্সি মশিয়ার রহমান, চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট একিউএম নাছির উদ্দিন, অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মো. নজরুল ইসলাম, জজ মো. আবু হান্নান, জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মো. চাহেল তস্তরী, ওসি মো. আলমগীর হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আবদুল গফুর, শ্রীগুরু সংঘের সাধারণ সম্পাদক বিমল কান্তি দেব, কালীপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আ ন ম শাহাদত আলম, বৈলছড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কফিল উদ্দীন, বাঁশখালী পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি প্রদীপ গুহ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা আরও বলেন, ‘এখন বাঁশখালীতে যে সম্প্রীতি পরিলক্ষিত হচ্ছে তাতে আমার কোনো মতেই বিশ্বাস হচ্ছে না যে, আজ থেকে ক’বছর আগে বাঁশখালীতে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ১১ জনকে পুড়িয়ে হত্যা করা হয়েছিল। সবার নিজ নিজ ধর্ম পালনের জন্য সম্প্রীতি বজায় রাখতে হবে।’

এ অনুষ্ঠান ছাড়াও বাঁশখালী আইনজীবী সমিতি থেকে প্রধান বিচারপতিকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। তিনি বাঁশখালীর নবনির্মিত আদালত ভবন পরিদর্শন করেন। বাঁশখালী পূজা উদযাপন পরিষদের পক্ষ থেকেও তাকে সম্মাননা দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন
মন্তব্য
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved