শিরোনাম
 ঘূর্ণিঝড় 'মোরা': চট্টগ্রাম-কক্সবাজারে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত  অস্ট্রিয়ার উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রীর ঢাকা ত্যাগ  দিনাজপুরে অটোরিকশার সাথে সংঘর্ষের পর বাস খাদে, নিহত ৩  নতুন ভ্যাট আইনে সংকট তৈরি হবে
প্রিন্ট সংস্করণ, প্রকাশ : ১৮ মে ২০১৭, ০০:২৪:৫৩

মুনাফা বেড়েছে ৫৮টির কমেছে ২৭ কোম্পানির

আনোয়ার ইব্রাহীম
চলতি হিসাব বছরের প্রথম প্রান্তিক জানুয়ারি-মার্চ সময়ের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে তালিকাভুক্ত ব্যাংক, ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠান এবং সাধারণ বীমা খাতের ৮৫ কোম্পানি। এর মধ্যে মাত্র ছয়টি লোকসান করেছে। মুনাফায় রয়েছে ৭৯টি। আবার ৫৮টির মুনাফা গত বছরের একই সময়ের তুলনায় বেড়েছে।

প্রধান শেয়ারবাজার ডিএসইর ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্য বিশ্লেষণে দেখা গেছে, আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করা ৮৫ কোম্পানির মধ্যে মুনাফা কমেছে ২৭টির। শেয়ারবাজারে ব্যাংক, ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠান এবং সাধারণ বীমা খাতের তালিকাভুক্ত কোম্পানির সংখ্যা ৮৮টি। অর্থাৎ নির্ধারিত সময়ের মধ্যে তিনটি কোম্পানি তাদের আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেনি। এগুলো হলো স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্স, পিপলস লিজিং ও বিআইএফসি।

প্রাপ্ত তথ্য বিশ্লেষণে দেখা গেছে, মুনাফায় থাকা ৭৯ কোম্পানি গত জানুয়ারি-মার্চ প্রান্তিকে সর্বমোট এক হাজার ৯৬৬ কোটি টাকা কর-পরবর্তী নিট মুনাফা করেছে, যা গত বছর ছিল এক হাজার ৪০৫ কোটি টাকা। অর্থাৎ এক বছরের ব্যবধানে আর্থিক খাতের কোম্পানিগুলোর নিট মুনাফা প্রায় ৪০ শতাংশ বেড়েছে। এর মধ্যে মুনাফা কমপক্ষে ৫০ শতাংশ থেকে তিনগুণ হয়েছে অন্তত ২৪ কোম্পানির। বিপরীতে লোকসান করা ছয় কোম্পানির বছরের প্রথম প্রান্তিকে মোট লোকসান হয়েছে ১৭১ কোটি টাকা, যা গত বছরের একই সময়ে প্রায় ৫৮ কোটি টাকা। অর্থাৎ এক বছরের ব্যবধানে এসব কোম্পানির লোকসান বেড়ে প্রায় তিনগুণ হয়েছে।

পর্যালোচনায় আরও দেখা গেছে, প্রথম প্রান্তিকের গত বছরের তুলনায় এ বছর চারগুণ মুনাফা হয়েছে পূরবী জেনারেল ইন্স্যুরেন্সের। এ বছর ইপিএস হয়েছে ৮০ পয়সা এবং নিট মুনাফা ৩ কোটি ৫৯ লাখ টাকা, যা গত বছর ছিল যথাক্রমে ২০ পয়সা ও ৯০ লাখ টাকা।

এ ছাড়া ইপিএস ও নিট মুনাফা তিনগুণ থেকে প্রায় চারগুণ হয়েছে যমুনা ব্যাংক (ইপিএস ৩৯ পয়সা ও ২৪ কোটি টাকা), ইসলামিক ফাইন্যান্স (৫৮ পয়সা ও ৭ কোটি টাকা), বিডি ফাইন্যান্স (৬৯ পয়সা ও ৮ কোটি ৬৮ লাখ টাকা), লংকাবাংলা ফাইন্যান্স (৯৪ পয়সা ও প্রায় ৩০ কোটি টাকা), প্রিমিয়ার ব্যাংক (৪৪ পয়সা ও ৭০ কোটি টাকা) এবং প্রিমিয়ার লিজিংয়ের (৪৪ পয়সা ও ৫ কোটি টাকা)।

ইপিএস বা নিট মুনাফা দ্বিগুণ থেকে প্রায় তিনগুণ হয়েছে ইউনিয়ন ক্যাপিটাল (ইপিএস ১৯ পয়সা ও নিট মুনাফা সোয়া ৭ কোটি টাকা), প্রিমিয়ার ইন্স্যুরেন্স (৭৬ পয়সা ও ৩ কোটি ১১ লাখ টাকা), ওয়ান ব্যাংক (১ টাকা ৩৫

পয়সা ও ৮৯ কোটি ৫৯ লাখ টাকা), পূবালী ব্যাংক (৭৬ পয়সা ও ৭২ কোটি টাকা) এবং মাইডাস ফাইন্যান্স (৬৫ পয়সা ও পৌনে ৮ কোটি টাকা)।

প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী ব্যাংক খাতের তালিকাভুক্ত ৩০ কোম্পানির মধ্যে ২৮টিই মুনাফা করেছে। লোকসানে এক্সিম ও আইসিবি ইসলামিক ব্যাংক। মুনাফায় থাকা ২৮ ব্যাংক নিট মুনাফা করেছে এক হাজার ৪১৬ কোটি টাকা। গত বছর প্রথম প্রান্তিকে এ ব্যাংকগুলোর নিট মুনাফা ছিল এক হাজার ১৮০ কোটি টাকা। এ ছাড়া মুনাফায় থাকা ১৯ ব্যাংকের নিট মুনাফা ও ইপিএস বেড়েছে, কমেছে ৯টির।

এ খাতের কোম্পানিগুলোর মধ্যে সর্বাধিক ২ টাকা ৯১ পয়সা ইপিএস অর্জন করেছে ডাচ্-বাংলা ব্যাংক। যদিও গত বছরের তুলনায় তা ৩৮ পয়সা কম। ইপিএসের দিক থেকে এর পরের অবস্থানে থাকা ব্র্যাক, ওয়ান, ইবিএল, ট্রাস্ট ও মার্কেন্টাইল ব্যাংকের ছিল যথাক্রমে ১ টাকা ৬২ পয়সা, ১ টাকা ৩৫ পয়সা, ১ টাকা ৩৪ পয়সা, ১ টাকা ১৫ পয়সা ও ১ টাকা ৮ পয়সা।

ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠান খাতের তালিকাভুক্ত ২৩ কোম্পানির মধ্যে বিএফআইসি ও পিএলএফএসএল ছাড়া বাকি ২১টি প্রথম প্রান্তিকের আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। এর মধ্যে ফারইস্ট, ফার্স্ট, প্রাইম ও ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স ছাড়া বাকিগুলো ছিল মুনাফায়। মুনাফায় থাকা ১৭ কোম্পানির নিট মুনাফা হয়েছে ৪৫৬ কোটি টাকা। এর মধ্যে ১৫টির ইপিএস ও নিট মুনাফা বেড়েছে। লোকসানে থাকা চার কোম্পানি নিট লোকসান করেছে প্রায় ৮৯ কোটি টাকা।

তালিকাভুক্ত সাধারণ বীমা খাতের ৩৫ কোম্পানির মধ্যে স্টান্ড্যার্ড ইন্স্যুরেন্স ছাড়া বাকি সবক'টিই আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। এর সবক'টিই ছিল মুনাফায়। এর মধ্যে ২১টিরই মুনাফা গত বছরের একই প্রান্তিকের তুলনায় বেড়েছে ও কমেছে বাকি ১৩টির।

বীমা কোম্পানিগুলো চলতি হিসাব বছরের প্রথম তিন মাসে নিট মুনাফা করেছে ৯৩ কোটি ২৫ লাখ টাকা। গত বছর একই সময়ে কোম্পানিগুলোর যা ছিল সাড়ে ৮১ কোটি টাকা।

এর মধ্যে সর্বাধিক ১ টাকা ৩ পয়সা ইপিএস অর্জন করেছে রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্স। গত বছর যা ছিল ৮৪ পয়সা। এ ছাড়া নর্দান ইন্স্যুরেন্সের ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ১ পয়সা। যদিও তা গত বছরের তুলনায় ৮ পয়সা কম। ইপিএসের দিক থেকে এর পরের অবস্থানে রয়েছে বিজিআইসি (৮৯ পয়সা), গ্রিন ডেল্টা (৮৮ পয়সা), পাইওনিয়ার (৮৬ পয়সা), পূরবী জেনারেল (৮০ পয়সা)।
মন্তব্য
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved