শিরোনাম
 চাঁপাইনবাবগঞ্জে 'জঙ্গি আস্তানায়' ফের গুলির শব্দ, অভিযান শুরু  টাঙ্গাইলে ২ ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২
প্রিন্ট সংস্করণ, প্রকাশ : ২১ এপ্রিল ২০১৭, ০১:২৫:১০

১৩ বছর পর নিলামে উঠছে ৯ গাড়ি-ট্রলার

আহমেদ কুতুব, চট্টগ্রাম ব্যুরো

চট্টগ্রামের ১০ ট্রাক অস্ত্র ও চোরাচালান মামলায় বাজেয়াপ্ত করা কয়েক কোটি টাকার ৯টি গাড়ি ও ট্রলার ১৩ বছর পর নিলামে উঠছে। এ লক্ষ্যে পুলিশ সম্প্রতি চট্টগ্রাম মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতের অনুমতি চেয়েছে।

এ প্রসঙ্গে চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (প্রসিকিউশন) নির্মলেন্দু বিকাশ চক্রবর্তী সমকালকে বলেন, '১০ ট্রাক অস্ত্র ও চোরাচালান মামলায় জব্দ করা আলামত ট্রাক, ট্রলার ও প্রাইভেটকার রাষ্ট্রের বরাবর বাজেয়াপ্ত করেন আদালত। দীর্ঘদিন খোলা আকাশের নিচে রোদ-বৃষ্টিতে পড়ে নষ্ট ও অকেজো হয়ে যাচ্ছে কয়েক কোটি টাকার গাড়ি ও ট্রলার। তাই এগুলো পুরোপুরি অকেজো হওয়ার আগে নিলামে তুলে বিক্রি করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।'

জানা গেছে, ২০০৪ সালের ১ এপ্রিল চট্টগ্রাম মহানগরীর কর্ণফুলী থানার সিইউএফএল ঘাটে ১০ ট্রাক অস্ত্র খালাস হয়। এ সময় পুলিশ অস্ত্র ও বিশেষ ক্ষমতা আইনের দুটি মামলায় দুটি কাঠের তৈরি ট্রলার, পাঁচটি ট্রাক, একটি মেরুন রঙের প্রাইভেটকার ও একটি ক্রেন ট্রাক জব্দ করে। ২০১৪ সালের ৩০ জানুয়ারি চট্টগ্রাম সিনিয়র স্পেশাল জজ-১ এর বিচারক এসএম মজিবুর রহমানের আদালত জামায়াতে ইসলামীর সাবেক আমির যুদ্ধাপরাধী মতিউর রহমান নিজামী, সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর, ভারতের বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন উলফার সামরিক কমান্ডার পরেশ বড়ুয়া এবং ডিজিএফআই ও এনএসআই গোয়েন্দা সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ ১৪ জনকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদ ের আদেশ দেন। পাশাপাশি দুই মামলায় জব্দ করা এসব আলামত রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ দেন। আদালতের নির্দেশে বাজেয়াপ্ত করা এসব গাড়ি নগরীর দামপাড়া পুলিশ লাইনের এমটি শাখার ওসি ও ট্রলারগুলো সিআরবি পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জের নিকট জিম্মায় রয়েছে।

চট্টগ্রাম মহানগর কোর্ট পুলিশের মালখানার অফিসার ইনচার্জ এসআই মো. আবু সায়েদের প্রতিবেদনে উলেল্গখ করা হয়েছে, মূল্যবান এসব গাড়ি ও ট্রলারের অধিকাংশ যন্ত্রপাতি নষ্ট ও অকেজো হয়ে যাচ্ছে। নিলামে না তোলায় সরকার বিপুল পরিমাণ রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। গত ২৯ মার্চ পুলিশ এ প্রতিবেদনসহ গাড়ি ও ট্রলার নিলামে তোলার অনুমতি চেয়ে চট্টগ্রাম মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে আবেদন করে।

গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে নগরীর দামপাড়ায় মহিলা পুলিশ ব্যারাক মাঠে গিয়ে পাঁচটি ট্রাক ও একটি ক্রেন ট্রাকের জরাজীর্ণ অবস্থা দেখতে পাওয়া যায়। গাড়িগুলোর ওপর ও চারপাশে আগাছা উঠে রয়েছে। এর মধ্যে দুটি ট্রাকের বডিতে লালচে জং ধরেছে। একটি ট্রাকের কোনো চাকাই দেখা যায়নি। তবে ক্রেন ট্রাকটি এখনও বেশ মজবুত দেখা গেছে। আর কর্ণফুলী নদীর পাড়ে পড়ে থাকা দুটি ট্রলারেরও করুণ অবস্থা দেখা গেছে। ট্রলারগুলোতে ইঞ্চিনের অধিকাংশ যন্ত্রপাতি চোরের দল নিয়ে যাওয়ায় ইঞ্জিন দেখা যায়নি। দুটি ট্রলারের বডির পাঠাতনগুলোতে পচন ধরে গেছে।


মন্তব্য
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved