শিরোনাম
 লংগদুতে যৌথবাহিনীর অভিযানে একে-৪৭ রাইফেল-গুলি উদ্ধার  গাবতলীর পশুরহাটে ভয়াবহ আগুন  সিরাজগঞ্জে বাস- মাইক্রো সংঘর্ষে নিহত ৪  নতুন ভ্যাট আইন ২ বছর স্থগিত
প্রিন্ট সংস্করণ, প্রকাশ : ২১ এপ্রিল ২০১৭, ০০:০৭:৩৭

ইপিজেডে ট্রেড ইউনিয়ন চালুর চিন্তা সরকারের

সমকাল প্রতিবেদক
রফতানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চলে (ইপিজেড) ট্রেড ইউনিয়ন চালুর চিন্তা করছে সরকার। এ বিষয়ে আলোচনার মাধ্যমে বাস্তবসম্মত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। তিনি বলেন, যেহেতু ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) বারবার তাগাদা দিচ্ছে, সেহেতু সরকার একটি সমাধান বের করার উদ্যোগ নেবে।

গতকাল সচিবালয়ে সফররত জার্মানির সংস্থা ফ্রেডরিক এবার্ট স্টিফাংয়ের (এফইএস) প্রতিনিধি দলের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন বাণিজ্যমন্ত্রী। এ সময় এফইএসের ভাইস চেয়ারম্যান ও প্রতিনিধি দলের নেতা মাইকেল সোমারসহ অন্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। এফইএস হলো জার্মানির প্রাচীনতম রাজনৈতিক ফাউন্ডেশন। এটি সোশ্যাল ডেমোক্রেটিক পার্টির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট। গণতন্ত্র ও রাজনৈতিক শিক্ষার প্রসারে কাজ করে এ সংগঠন।

মাইকেল সোমার বলেন, ইইউতে বাংলাদেশের জিএসপি সুবিধা অব্যাহত থাকুক তারা তা চান। এ ক্ষেত্রে ইইউ চায় ইপিজেডে আধুনিক ট্রেড ইউনিয়ন চালু করা হোক। শ্রমিক ইউনিয়ন কারখানার জন্য সমস্যা নয়, এটা সমাধানের মাধ্যম। তিনি বলেন, বাংলাদেশ শ্রমিকদের জন্য অনেক কিছু করেছে, যা প্রশংসারযোগ্য। বিগত যে কোনো সময়ের চেয়ে এখন এ দেশে শ্রমিকরা নিরাপদ। রানা প্লাজা দুর্ঘটনার পরে সফলভাবে পরিস্থিতি মোকাবেলা করেছে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, দেশের আট ইপিজেডে প্রায় চার লাখ শ্রমিক কাজ করছেন। বাইরের শ্রমিকদের চেয়ে তারা বেশি বেতন ও সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছেন। এখানকার শ্রমিকরা চান নিজেদের মধ্যে শ্রমিক সংগঠন তৈরি করতে। বাইরের কাউকে তারা নিজেদের নেতা নির্বাচন করতে চান না। তিনি বলেন, 'আজ (বৃহস্পতিবার) আইন মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় কমিটির একটি বৈঠক আছে। সেখানে ইপিজেডে ট্রেড ইউনিয়ন করার ফর্মুলা বের করা যায় কি-না তা নিয়ে আলোচনা হবে।'

বাণিজ্যমন্ত্রী আরও বলেন, সরকারের সঙ্গে শ্রমিকদের সম্পর্ক খুবই আন্তরিক। শ্রমিকদের জন্য নিরাপদ ও কর্মবান্ধব পরিবেশ নিশ্চিত করা হয়েছে। শ্রমিকদের অধিকার নিশ্চিত করতে শ্রম আইন সংশোধন করে সময়োপযোগী করা হয়েছে। শ্রম আইন মেনে ইপিজেডে ট্রেড ইউনিয়নের আদলে শ্রমিক কল্যাণ সমিতি গঠনের অধিকার দেওয়া হয়েছে। শ্রমিকরা সেখানে মালিক পক্ষের সঙ্গে দর কষাকষি করতে পারছেন। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে জিএসপি সুবিধা পাওয়ার ক্ষেত্রে বড় শর্ত হচ্ছে, ইপিজেডে অন্যান্য কারখানার মতো ট্রেড ইউনিয়ন ব্যবস্থা চালু রাখা। ইউরোপীয় ইউনিয়নও ইপিজেডে ট্রেড ইউনিয়ন চালুর জন্য তাগিদ দিয়ে আসছে। বাংলাদেশের মোট রফতানি আয়ের ৫৫ ভাগ আসে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন থেকে।

সভায় জার্মানির রাষ্ট্রদূত ড. থমাস প্রিন্জ, এফইএসের এশিয়া অ্যান্ড দ্য প্যাসিফিকের প্রধান জুর্জেন স্টেটিটেন, বাংলাদেশের রেসিডেন্ট রিপ্রেজেন্টেটিভ ফ্রানজিসকা কর্ন, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মুন্সী শফিউল হক ও মো. শফিকুল ইসলাম এবং ডবি্লউটিওর মহাপরিচালক মুনির চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।
মন্তব্য
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved