শিরোনাম
 সাত খুন মামলায় ১৫ জনের ফাঁসি বহাল, ১১ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড  প্রধান বিচারপতির সঙ্গে গওহর রিজভীর সাক্ষাৎ  বিবিএস ক্যাবলসের অস্বাভাবিক দর তদন্তে কমিটি  বন্যাদুর্গত এলাকায় কৃষি ও এসএমই ঋণ পুনঃতফসিলের সুযোগ
প্রকাশ : ২০ এপ্রিল ২০১৭, ১৮:৩৫:৫৪

বিএনপিকে নির্বাচনে নেয়ার ব্যবস্থা করুন: ফখরুল

সমকাল প্রতিবেদক
বিএনপিকে কি করে নির্বাচনে নেওয়া যায় সেই চেষ্টা করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দলটির  মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, দলের নিবন্ধন বাতিলের ভয় দেখিয়ে কোন লাভ নেই। কারণ বিএনপিকে ছাড়া দেশে কোনো নির্বাচন হতে দেয়া হবে না। তাই বিএনপিকে কিভাবে নির্বাচনে নেয়া যায় সে ব্যবস্থা করুন।

একই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের রাজনীতিকে ‘প্রতিবন্ধী’ করে রেখেছেন বলে অভিযোগ করেন তিনি।

বৃহস্পতিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে বিএনপির উদ্যোগে দলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এম ইলিয়াস আলীসহ  অন্য সব নেতাকর্মীর গুম-খুনের প্রতিবাদে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন দলের ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহজাহান। সভা পরিচালনা করেন সহ-প্রচার সম্পাদক আমিরুল ইসলাম আলিম।

অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিএনপির ভ্ইাস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, আতাউর রহমান ঢালী, যুগ্ম মহাসচিব মজিবুর রহমান সারোয়ার, খায়রুল কবীর খোকন, হাবিবউন নবী খান সোহেল, কেন্দ্রীয় নেতা ড. আসাদুজ্জামান রিপন, শামা ওবায়েদ, কামরুজ্জামান রতন, হাবিবুল ইসলাম হাবিব, এবিএম মোশাররফ হোসেন, মীর সরফত আলী সপু, আবদুস সালাম আজাদ প্রমুখ।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, প্রধানমন্ত্রী প্রায়ই বিদেশ সফরে যান। খুব নিবিঘ্নে যান এবং শান্তিতে ঘুরাঘুরি করে আসেন। এর মধ্যে প্রধানমন্ত্রী ভুটানে গিয়েছেন, প্রতিবন্ধীদের তিনদিনের আন্তর্জাতিক সম্মেলন উদ্বোধন করেন। কিন্তু তার দেশের রাজনীতিকে পুরোপুরি প্রতিবন্ধী করে রেখেছেন। মানুষকে সম্পূর্ণভাবে পঙ্গু করে রেখে দিয়েছেন। সেই দিকে থেকে তার কোনো খেয়াল নেই, সেই নজরও নেই। 

আগামী নির্বাচন সম্পর্কে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোহাম্মদ নাসিমের বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় বিএনপি মহাসচিব বলেন, ২০১৪ সালের যে নির্বাচন হয়েছে তাতে কোনো বিরোধী দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেনি। যার ফলে সেই নির্বাচন আন্তর্জাতিকভাবে ও দেশের মানুষের কাছে গ্রহণযোগ্য হয়নি। আমরা বলব, বিএনপিকে কি করে নির্বাচনে আনবেন, সেই চেষ্টা করুন। বিএনপি নির্বাচনে না আসলে তার নিবন্ধন বাতিল হবে, সেই কথা বলে লাভ নেই। বিএনপি দেশের সর্ববৃহৎ রাজনৈতিক দল, বিএনপি ছাড়া কোনো নির্বাচন হবে না, হতে পারে না।

নির্বাচনের ব্যাপারে দলের অবস্থান পুনর্ব্যক্ত করে মির্জা ফখরুল বলেন, বিএনপি একটা নির্বাচনমুখী লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি। নির্বাচন ছাড়া ক্ষমতায় যাওয়ার কথা বিএনপি কখনো চিন্তা করে না। সেই নির্বাচনে যাওয়ার জন্য তো একটা পথ লাগবে। প্রতিপথে প্রতিবন্ধক সৃষ্টি করবেন, প্রতি পথ আটকিয়ে রাখবেন, আর আমাকে বলবেন নির্বাচনে যাও। এটা হয় না। নিরপেক্ষ সরকার অধীনে যে সরকার কোনো পক্ষ নেবেন না ওই নির্বাচনকালীন সময়ে এবং নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের অধীনে নির্বাচন হতে হবে। অন্যথায় এদেশের কোনো নির্বাচন হবে না।

তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ৩৬ টা মামলা। সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে কমপক্ষে ৮০ টার কাছাকাছি মিথ্যা মামলা দিয়ে চলেছে। বিএনপির সব নেতার বিরুদ্ধে মামলা। এটাকে তারা হাতিয়ার হিসেবে নিয়েছে বিএনপিকে স্তব্ধ করার জন্য।

ফখরুল বলেন, এই সরকার বাংলাদেশের মানুষের ওপর গত ৮/৯ বছর ধরে যে স্টিমরোলার চালাচ্ছে এটা পৃথিবীর ইতিহাসে খুব বিরল, খুব কম দেখা যায়। শুধু ইলিয়াস আলী নয়, বিএনপির ৫ শতাধিক নেতা-কর্মীকে গুম করে ফেলা হয়েছে। এই অপরাধ ক্ষমা করার নয়। যারা এই অপরাধের সঙ্গে জড়িত তারা ক্ষমার যোগ্য নয়।

আরও পড়ুন
মন্তব্য
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved