শিরোনাম
 বাঁধ নির্মাণে গাফিলতি থাকলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী  এমপি লিটন হত্যা: কাদের খানসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল  প্রধানমন্ত্রী হাওরের ভয়াবহতা উপলব্ধি করেননি: খালেদা জিয়া
প্রকাশ : ১৮ এপ্রিল ২০১৭, ২০:০১:৪৯

শিক্ষকের ওপর শিক্ষকের হামলার অভিযোগে মাদ্রাসা বন্ধ

মাগুরা প্রতিনিধি
এক শিক্ষকের ওপর অন্য এক শিক্ষকের হামলার অভিযোগে মাগুরা সিদ্দিকিয়া কামিল (এমএ) মাদ্রাসা মঙ্গলবার থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। ওই দুই শিক্ষক হলেন, মাহফুজুর রহমান ও আতাউর রহমান।

মাহফুজুর রহমান অভিযোগ, তিনি মঙ্গলবার দুপুরে দিকে সপ্তম শ্রেণীর ক্লাস নিচ্ছিলেন। এসময় হঠাৎ করে বিজ্ঞান শিক্ষক আতাউর রহমান শ্রেণীকক্ষে ঢুকে তাকে লাঠি পেটা শুরু করেন। তার মারপিটে এক পর্যায়ে শরীরে জামা কাপড় পর্যন্ত ছিড়ে যায়। ছাত্ররা এগিয়ে এলে আতাউর রহমান পালিয়ে যান।

তিনি বলেন, শিবিরের রাজনীতির সাথে জড়িত আতাউর নানা অনৈতিক কাজের সাথে জড়িত। তিনি তার কাছে প্রাইভেট পড়া ছাত্রদের মাঝে পরীক্ষার প্রশ্নপত্র পর্যন্ত বিক্রি করে দেন। যে কারনে অধ্যক্ষসহ মাদ্রাসার অধিকাংশ শিক্ষকের সাথে তার সম্পর্ক ভাল নয়। এ ঘটনার প্রতিবাদ করায় ক্ষুব্ধ হয়ে তিনি আমার উপর হামলা চালিয়েছেন। আহত অবস্থায় মাহফুজুর রহমান মাগুরা ২৫০ শষ্যা সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বলে জানান।

মাদ্রাসার অধ্যক্ষ এবিএম মাহফুজুর রহমান বলেন, আতাউর রহমান কতৃক মওলানা মাহফুজুর রহমানের উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় উত্তেজনাকর পরিস্থিতি ও বহিরাগতদের আগমনের আশঙ্কায় তিনি তাৎক্ষণিকভাবে মাদ্রাসা ছুটি ঘোষণা করেছেন।

মাদ্রাসা সভাপতি ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. সাজ্জাদুর রহমানও ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। অধ্যক্ষ ও সভাপতি দুইজই সভা করে পরবর্তী করণীয় বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন বলে জানিয়েছেন।

তবে আতাউর রহমান তার বিরুদ্ধে অনা সব অভিযোগ অস্বীকার করেন। মাওলানা মাহফুজুর রহমান তাকে নিয়ে নানা কুৎসা রটাচ্ছেন। যে কারণে  ক্লাসে গিয়ে সালাম দিয়ে বিষয়টি জিজ্ঞাসা করছেন। তিনি উল্টে উত্তেজিত হয়ে আমার উপর হাত তুলেছেন। যা তিনি প্রতিহত করেছেন মাত্র। এছাড়া তার বিরুদ্ধে যারা প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ দিচ্ছেন,তারাই প্রশ্ন ফাঁস করেন। মূলত অধ্যক্ষের এক চোঁখা নীতির কারণে এ সবকিছু হচ্ছে। উনি  যারা অপরাধ করেন তাদের মাথায় তুলে নাচেন। আর ভাল কাজের তিরস্কার করেন।

মাগুরা সদর থানার ওসি ইলিয়াস হোসেন জানান,বিয়ষটি তারা জানেন না। কেউ অভিযোগ দিলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন
মন্তব্য
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved