শিরোনাম
 ঘূর্ণিঝড় 'মোরা': চট্টগ্রাম-কক্সবাজারে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত  অস্ট্রিয়ার উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রীর ঢাকা ত্যাগ  দিনাজপুরে অটোরিকশার সাথে সংঘর্ষের পর বাস খাদে, নিহত ৩  নতুন ভ্যাট আইনে সংকট তৈরি হবে
প্রকাশ : ১৭ এপ্রিল ২০১৭, ১৪:৪২:৪৩

তুরস্কে বিরোধীদের বিক্ষোভ, গণভোটের ফল চ্যালেঞ্জের ঘোষণা

অনলাইন ডেস্ক
তুরস্কে অনুষ্ঠিত গণভোটের ফলের বিরোধীতা করে চলছে বিক্ষোভ। অন্যদিকে দেশটির প্রেসিডেন্টের ক্ষমতা বাড়ানোর প্রশ্নে আয়োজিত গণভোটের ফল চ্যালেঞ্জ করার ঘোষণা দিয়েছে দেশটির প্রধান দুই বিরোধী দল।
 
নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় অনিয়মের অভিযোগ তুলে দেশটির প্রধান বিরোধী দল রিপাবলিকান পিপলস পার্টি (সিএইচপি) গণভোটের বৈধতা নিয়েই প্রশ্ন তুলেছে।
 
সিএইচপির প্রধান কেমাল কিল্লিচদারোগলু বলেন, নির্বাচনী কর্তৃপক্ষের কর্মকাণ্ডই 'গণভোটের বৈধতাকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে'। তিনি দাবি করেন, অন্তত ৫০ শতাংশ ভোট পড়েছে 'না' এর পক্ষে।
 
দলটির উপ-প্রধান এরদাল আকসুঙ্গার সাংবাদিকদের বলেন, 'এটা একেবারেই অগ্রহণযোগ্য। আমরা এখানে সেটা ঘোষণা করছি।'
 
তুরস্কে বিরোধীদের বিক্ষোভ, গণভোটের ফল চ্যালেঞ্জের ঘোষণা
আঙ্কারায় বিরোধীদের বিক্ষোভ- এএফপি
আরেক বিরোধীদল কুর্দিদের সমর্থনপুষ্ট পিপলস ডেমক্রেটিক পার্টি (এইচডিপি) বলছে, ভোটের দুই-তৃতীয়াংশ তারা চ্যালেঞ্জ করবে। দলটির দাবি, 'ভোটে ৩ থেকে ৪ শতাংশ পয়েন্ট কারচুপির ইঙ্গিত মিলেছে।'
 
তুরস্কের প্রেসিডেন্টের ক্ষমতা বাড়ানো এবং সরকার ব্যবস্থা পরিবর্তনে আয়োজিত গণভোটে সামান্য ব্যবধানে জয়ী হন এরদোয়ান। ৯৯ দশমিক ৯৭ শতাংশ ভোট গণনা শেষে দেখা যায়, 'হ্যাঁ' ভোট পড়ে ৫১ দশমিক ৪১ শতাংশ। আর 'না' ভোট পড়ে ৪৮ দশমিক ৬৩ শতাংশ।
 
ভোটের ফল বিশ্লেষণে দেখা গেছে, তুরস্কের সবচেয়ে বড় তিন শহর— ইস্তাম্বুল, আঙ্কারা ও ইজমিরেই সাংবিধানিক পরিবর্তনের প্রশ্নে 'না' ভোট বিজয়ী হয়।
 
দেশের সবচেয়ে বড় তিন শহরে 'না' ভোট জয়ী হওয়া সত্ত্বেও প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানের ভোটে জিতে যাওয়া মেনে নিতে পারছেন বিরোধীদের সমর্থকরা। তাই তুরস্কজুড়েই রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করছেন বিরোধী দলগুলোর সমর্থকরা। এর মধ্যে দেশটির সবচেয়ে বড় তিন শহরেই বিক্ষোভের মাত্রা বেশি।
 
তুরস্কে বিরোধীদের বিক্ষোভ, গণভোটের ফল চ্যালেঞ্জের ঘোষণা
ভোটে জয়ী হওয়ায় এরদোয়ান সমর্থকদের উল্লাস- এএফপি
এদিকে বিক্ষোভের পাশাপাশি চলছে আনন্দ মিছিলও। গণভোটে এরদোগান বিজয়ী হওয়ায় তার সমর্থকরা পতাকা নিয়ে রাস্তায় নেমে উদযাপন করছেন, 'ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত' গ্রহণ করায় যাদের প্রশংসায় ভাসিয়েছেন প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান।
 
আর তুরস্কের জনগণের এই 'ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত' ২০২৯ সাল পর্যন্ত এরদোয়ানের ক্ষমতায় থাকার পথ তৈরি করে দিতে পারে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।
 
এরদোয়ান সমর্থকেরা বলছেন, সংসদীয় গণতন্ত্র থেকে প্রেসিডেন্ট শাসিত সরকার ব্যবস্থায় পরিবর্তনের মাধ্যমে দেশটিতে আমূল পরিবর্তন সাধিত হবে। সূত্র: বিবিসি ও এএফপি
আরও পড়ুন
মন্তব্য
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved