শিরোনাম
 ঘূর্ণিঝড় 'মোরা': চট্টগ্রাম-কক্সবাজারে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত  অস্ট্রিয়ার উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রীর ঢাকা ত্যাগ  দিনাজপুরে অটোরিকশার সাথে সংঘর্ষের পর বাস খাদে, নিহত ৩  নতুন ভ্যাট আইনে সংকট তৈরি হবে
প্রকাশ : ১২ এপ্রিল ২০১৭, ১৬:৫২:৫৩ | আপডেট : ১২ এপ্রিল ২০১৭, ২১:১০:৩১

চবিতে বৈশাখের দেয়ালচিত্রে দুর্বৃত্তদের পোড়া মবিল

চবি প্রতিনিধি
নতুন বছরকে বরণ করে নিতে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) চারুকলা ইনস্টিটিউটের প্রবেশমুখের দেয়ালে আঁকা বাংলার ঐতিহ্যের চিত্র মবিল দিয়ে নষ্ট করে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। 

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে নগরীর বাদশা মিয়া সড়কে অবস্থিত চবির চারুকলা ইনস্টিটিউটে সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। এর প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার বর্ষ বিদায় অনুষ্ঠানে কালো ব্যাজ ধারণ করবেন তারা।

প্রতি বছর পহেলা বৈশাখকে সামনে রেখে ইনস্টিটিউটের প্রবেশমুখের দেয়ালে বাংলার বিভিন্ন ঐতিহ্যের চিত্র আঁকেন চারুকলার শিক্ষার্থীরা। এবার কালিঘাটের পটের বিভিন্ন পটচিত্র, সাঁওতালি পটচিত্র এবং যামিনী রায়ের বিভিন্ন ছবি আঁকা হয়েছিল ওই দেয়ালে।

এ প্রসঙ্গে চারুকলা ইনস্টিটিউটের সহকারী অধ্যাপক মো. জিহান করিম সমকালকে বলেন, প্রতি বছর পহেলা বৈশাখকে সামনে রেখে আমরা ইনস্টিটিউটের প্রবেশমুখে দেয়ালে বিভিন্ন ধরণের চিত্রকর্ম আঁকি। এবার আমরা কারিঘাটের পটের পটচিত্র, সাঁওতালি পটচিত্র এবং যামিনী রায়ের চিত্রকর্মগুলো দেয়ালে আঁকছিলাম। কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে ছিল। কিন্তু কয়েকজন দুর্বৃত্ত মোটরসাইকেলে করে এসে গত মঙ্গলবার রাতে দেয়ালে মবিল ঢেলে দিয়ে ছবিগুলো নষ্ট করে দেয়।

তিনি বলেন, কে বা কারা এ কাজ করেছে আমরা জানি না। তখন আমাদের শিক্ষার্থীরা ইনস্টিটিউটের ভিতরে কাজ করছিল। তাদের চিৎকার শুনতে পেয়ে তারা বাইরে আসে। তবে ততক্ষণে তারা পালিয়ে যায়।

জিহান করিম বলেন, ‘আমরা অবারা দেয়ালে আঁকবো। এসব করে আমাদের ঠেকানো যাবে না।’

চারুকলা ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থী সৌরভ শীল সমকালকে বলেন, ‘আমরা কত কষ্ট করে দেয়ালে এ ছবিগুলো এঁকেছিলাম। কিন্তু কারা এ ধরনের কাজ করলো বুঝতে পারছি না। আমরা তো কারো কোন ক্ষতি করি নি। আমরা আবারো আঁকবো। পহেলা বৈশাখের আগেই আবার দেয়ালে ছবিগুলো আঁকবো। দেখি আমাদের কে ঠেকায়।’

এদিকে এ ঘটনার পর এখনো পর্যন্ত কাওকে আটক করতে পারেনি পুলিশ। কে বা কারা এ কাজ করে পালিয়েছে তা জানাতেও পারেনি তারা। তবে ঘটনার পর থেকে ওই স্থানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

চকবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর মো. নুরুল হুদা সমকালকে বলেন, ‘কে বা কারা এ কাজ করে পালিয়েছে তা এখনো আমরা জানতে পারি নাই। ওই এলাকার সিসিটিভি ফুটেজ দেখে শনাক্ত করা হবে কারা এ কাজ করেছে। এছাড়া পূর্ব শত্রুতার জেরে কেউ এ কাজ করেছে কিনা তাও আমরা যাচাই করে দেখছি। ঘটনার পর থেকে চারুকলায় আমরা পুলিশ মোতায়েন করেছি।’ 

চারুকলা ইনস্টিটিউটের পরিচালক শায়লা শারমিন সমকালকে বলেন, ‘এটা খুবই দুঃখজনক ঘটনা। গত কয়েক সপ্তাহ ধরে আমাদের শিক্ষার্থীরা অনেক কষ্ট করে বিভিন্ন পটচিত্র দেয়ালে ফুটিয়ে তুলেছিল। রাস্তায় প্রতিনিয়ত গাড়ি চলছিল। তবুও আমাদের ছেলেমেয়েরা কাজ করে গেছে। কিন্তু কয়েকজন এসে পুরো কাজটাকে শেষ করে দিল। আমরা খুবই মর্মাহত। তবে এর মাধ্যমে বৈশাখকে বরণের প্রস্তুতি আমাদের কখোনই থামাতে পারবে না।’

এদিকে চারুকলা ইনস্টিটিউটের পয়লা বৈশাখ উদ্যাপন কমিটির আহ্বায়ক সজীব সেন সমকালকে বলেন, ‘দেওয়াল চিত্র নষ্ট করে বাঙালি সংস্কৃতির ওপর আঘাত হেনেছে দুর্বৃত্তরা। এর প্রতিবাদে বর্ষ বিদায় অনুষ্ঠানে কালো ব্যাজ ধারণ করা হবে এবং প্রতিবাদ স্বরূপ যেসব দেওয়াল চিত্র নষ্ট করা হয়েছে তা রেখে দেওয়া হবে।’

আরও পড়ুন
মন্তব্য
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved