শিরোনাম
 ঈদযাত্রার ট্রাক উল্টে রংপুরে নিহত ১৬  মহাসড়কে ধীরগতি  চীনে ভূমিধস, শতাধিক মানুষের মৃত্যুর আশঙ্কা
প্রকাশ : ০৯ এপ্রিল ২০১৭, ২১:১৪:১৫ | আপডেট : ০৯ এপ্রিল ২০১৭, ২১:১৯:৩৪

মেয়র মিরুর ভাই পিন্টু জামিনে মুক্ত

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি
সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার সমকাল প্রতিনিধি আব্দুল হাকিম শিমুল হত্যা মামলার প্রধান আসামি পৌর মেয়র হালিমুল হক মিরুর ছোট ভাই হাফিজুল হক পিন্টু (৪০) জামিনে মুক্তি পেয়েছেন।
 
উচ্চ আদালতের আদেশের পরিপ্রেক্ষিতে রোববার বিকেলে সিরাজগঞ্জ চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত থেকে পিন্টু জামিন লাভ করেন। এরপর সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে সিরাজগঞ্জ জেলা কারাগার থেকে ছাড়া পান তিনি। এসময় কারাফটকে পিন্টুর আইনজীবীসহ বেশ ক'জন স্বজন উপস্থিত ছিলেন।
 
জামিনে মুক্তির পর কারাফটক থেকেই মাইক্রোবাস যোগে পিন্টু ঢাকার পথে যাত্রা করেন বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা সমকালকে জানান।
 
সিরাজগঞ্জ কারাগারের জেলার আবুল বাশার সমকালকে বলেন, 'মহামান্য বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের ক্রিমিনাল মিস কেস নং-১৩৩০০/১৭-এর আবেদনের প্রেক্ষিতে বিচারপতি কামরুল ইসলাম সিদ্দিকী ও জাফর আহমেদ গত ৩ এপ্রিল পিন্টুর জামিন মঞ্জুর করেন। উক্ত জামিন মঞ্জুর আদেশের প্রেক্ষিতে রোববার সিরাজগঞ্জ চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত থেকে তার জামিন মঞ্জুর হয়। বিকেল ৫টার দিকে জামিন মঞ্জুরের আদেশপত্রটি আদালত থেকে জেলা কারাগারে আসে। আদেশপত্রটি যাচাই-বাছাই শেষে পিন্টু সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে কারাগার থেকে মুক্ত হন।'
 
মেয়র মিরুর ভাই পিন্টু জামিনে মুক্ত
রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে সিরাজগঞ্জ জেলা কারাগার থেকে জামিনে ছাড়া পান পিন্টু—সমকাল
উল্লেখ্য, শাহজাদপুর পৌর শহরের কান্দাপাড়ায় পৌরসভার একটি মেরামত ও সংস্কার কাজের ঠিকাদারি নিয়ে দ্বন্দ্বে উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি বিজয় মাহমুদের সঙ্গে মেয়র মিরুর সহোদর হাবিবুল হক মিন্টু ও হাফিজুল হক পিন্টুর দ্বন্দ্ব হয়। এর জের ধরে মেয়রের দু'ভাই গত ২ ফেব্রুয়ারি দুপুরে বিজয়কে মারপিট করে মেয়রের বাড়িতে আটকে রাখে। স্থানীয়রা পরে গুরতর অবস্থায় উদ্ধার করে বিজয়কে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করে। ওই ঘটনায় পরদিন বিজয়ের চাচা এরশাদ আলী বাদী হয়ে মেয়র মিরু ও তার দু'ভাই মিন্টু ও পিন্টুসহ ২৫ জনকে আসামি করে শাহজাদপুর থানায় মামলা করেন। ঘটনার দুই মাস এক সপ্তাহ পর উচ্চ আদালতের আদেশে জামিনে ছাড়া পেলেন পিন্টু।
 
অন্যদিকে, একই দিন ছাত্রলীগ নেতা বিজয়কে উদ্ধারের সময় স্থানীয় সরকারদলীয় লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এসময় মেয়র মিরু ও তার ভাই মিন্টু শটগান দিয়ে গুলি ছুড়েন। ওই সংঘর্ষের খবর সংগ্রহ ও ছবি তুলতে গিয়ে সমকাল সাংবাদিক শিমুল গুলিবিদ্ধ হন; পরদিন ঢাকায় নেয়ার পথে তিনি মারা যান।
আরও পড়ুন
মন্তব্য
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved