শিরোনাম
 রাজধানী ও কুষ্টিয়ায় 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত ৪  'রাজধানীতে বন্দুকযুদ্ধে নিহতরা এএসপি মিজান হত্যায় জড়িত'
প্রিন্ট সংস্করণ, প্রকাশ : ২১ মার্চ ২০১৭, ০০:৪৫:১৮

এমএসএনে জয়ে ফিরল বার্সা

৫ ম্যাচে হলুদ কার্ডে ১ ম্যাচ নিষিদ্ধ মেসি
স্পোর্টস ডেস্ক
চ্যাম্পিয়ন্স লীগে পিএসজি রূপকথার পরই বড় ধাক্কা খায় বার্সেলোনা। স্প্যানিশ লা লীগায় পুচকে দেপোর্তিভো লা করুনার কাছে ২-১ গোলে হেরে যায় কাতালানরা। পয়েন্ট টেবিলে রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে ব্যবধানও বেড়ে যায় বার্সার। ওই হারের পর আত্মবিশ্বাস ফিরে পাওয়ার জন্য একটা জয়ই যথেষ্ট ছিল লুইস এনরিকের দলের। সেই আত্মবিশ্বাস ফিরে পেয়েছে চ্যাম্পিয়নরা। ন্যু ক্যাম্পে একসঙ্গে জ্বলে উঠেছেন বিশ্বসেরা আক্রমণভাগের তিন তারকা মেসি, সুয়ারেজ ও নেইমার। এমএসএন ত্রয়ীর জ্বলে ওঠার ম্যাচে ভ্যালেন্সিয়াকে ৪-২ গোলে হারিয়ে ছন্দে ফিরেছে বার্সেলোনা। জোড়া গোল করেছেন পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলার মেসি। এই জয়ে লস ব্লাঙ্কোসদের সঙ্গে পয়েন্টের ব্যবধান দুইয়ে নামিয়ে এনেছেন মেসিরা। যদিও রিয়াল মাদ্রিদ এক ম্যাচ কম খেলেছে। ২৮ ম্যাচে ৬৩ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দুই নম্বরে আছে বার্সা। এক ম্যাচ কম খেলা রিয়াল ৬৫ পয়েন্ট নিয়ে আছে এক নম্বরে।

ন্যু ক্যাম্পে বার্সাকে পাল্টা জবাব দেয় ভ্যালেন্সিয়া। এমএসএন ত্রয়ীর আক্রমণের জবাব দারুণভাবে দিয়েছিল অতিথিরা। তবে এক মেসিই সব পার্থক্য গড়ে দিয়েছেন। দুই পায়ের জাদুতে প্রতিপক্ষের রক্ষণকে ছিন্নভিন্ন করে দেন আর্জেন্টাইন এ অধিনায়ক। কিন্তু জয় ছাপিয়ে কাতালানদের জন্য দুঃসংবাদ হলো গ্রানাডার বিপক্ষে লা লীগার পরের ম্যাচ খেলতে পারবেন না মেসি। স্প্যানিশ ফুটবলের নিয়মানুযায়ী কোনো ক্লাবের কোনো ফুটবলার এক মৌসুমে পাঁচটি হলুদ কার্ড দেখলে এক ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হবেন।

ম্যাচের শুরুতেই ভ্যালেন্সিয়ার ওপর চাপ প্রয়োগ করে বার্সেলোনা; কিন্তু হঠাৎ করেই ছন্দ হারিয়ে ফেলা কাতালানদের পরীক্ষায় ফেলে তারা। ম্যাচের ২৯ মিনিটে কর্নারে বার্সার দুর্বলতার সুযোগ কাজে লাগায় ভ্যালেন্সিয়া। দানিয়েলের কর্নারে বুলেট গতির হেডে বার্সার জাল কাঁপান ডিফেন্ডার মানগালা। তবে অতিথিদের সেই উচ্ছ্বাস বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। ছয় মিনিট পরই নেইমারের দ্রুত নেওয়া বুদ্ধিদীপ্ত থ্রোয়িং ফাঁকায় পেয়ে ডি-বক্সে ঢুকে বাঁকানো শটে স্কোরলাইন ১-১ করেন সুয়ারেজ। এরপর সেই সুয়ারেজের কারণেই লিড নেয় বার্সা। ৪৪ মিনিটে রক্ষণ ভেঙে ভেতরে ঢোকেন উরুগুইয়ান এ তারকা। তাকে পেছন থেকে টেনে ধরায় দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ থেকে বের হয়ে যান ভ্যালেন্সিয়ার গোলদাতা মানগালা। স্পট কিক থেকে গোল করতে ভুল করেননি মেসি।

বার্সেলোনার এগিয়ে যাওয়ার আনন্দটা হতাশায় রূপ দেন মুনির এল হাদ্দাদি। কাতালান জার্সি গায়ে একসময় মাঠ মাতিয়েছিলেন। যে কারণে গোল করলেও উদযাপন করেননি মুনির। তার গোলে সমতায় ফেরে বিরতিতে যায় ভ্যালেন্সিয়া। কাতালান শিবিরে চিন্তার রেখাটাও বেড়ে যায়। আরেকটি ম্যাচে পয়েন্ট হারানোর শঙ্কা জাগে। তবে সব শঙ্কা উড়িয়ে দেন মেসি। ম্যাচের ৫২ মিনিটে মেসির রক্ষণচেরা পাস ডি-বক্সে ফাঁকায় পেয়েও ব্যর্থ হন নেইমার। কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান গোলরক্ষক আলভেস। ওই কর্নারেই মাসচেরানোর পা ঘুরে আসা বল ডান দিকে পেয়ে বিদ্যুৎ গতির শটে আবারও দলকে এগিয়ে দেন মেসি। লা লীগার এবারের মৌসুমে আর্জেন্টাইন অধিনায়কের এটা ২৫তম গোল। আর সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে তার গোল সংখ্যা হলো ৪১টি।

সুয়ারেজ ও মেসি গোল পেয়েছেন। পাননি কেবল নেইমার। তাতে কী বার্সার দুটি গোলের অ্যাসিস্ট করেন ব্রাজিলিয়ান এ ফরোয়ার্ড। আন্দ্রে গোমেজের করা কাতালানদের চতুর্থ গোলেও ছিল নেইমারের অবদান। ম্যাচের ৮৯ মিনিটে বাঁ-দিক থেকে তার বাড়ানো বল অনায়াসে জালে পাঠান গোমেজ। তাতেই সব শঙ্কা উবে গিয়ে জয়োৎসবে মেতে ওঠে বার্সেলোনা।
মন্তব্য
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved