শিরোনাম
 আতিয়া মহলে দুই জঙ্গি নিহত, ভেতরে আরও আছে: ব্রিফিংয়ে সেনাবাহিনী  আতিয়া মহলে অভিযান চলছে, গুলি-বিস্ফোরণের শব্দ  জঙ্গিবাদ ছেড়ে সুপথে ফিরলে পুনর্বাসন: প্রধানমন্ত্রী  চুয়াডাঙ্গায় ট্রাক-ভটভটির সংঘর্ষে নিহত ১৩
প্রিন্ট সংস্করণ, প্রকাশ : ২১ মার্চ ২০১৭

অদ্ভুত সেই আট সেলফোন!

নাজমুস সাকিব
আগের দিনের সেলফোনের ডিজাইন কেমন ছিল_ এমন প্রশ্নের উত্তরে প্রচলিত কয়েকটি ডিজাইনের কথাই আপনার মনে পড়বে। কিন্তু অদ্ভুত ডিজাইনের এমন কয়েকটি সেলফোন বাজারে প্রচলিত ছিল, যা হয়তো আপনার অজানা। এমনই অদ্ভুত আটটি ডিজাইনের সেলফোন সম্পর্কে জেনে নিন।

স্যামসাং এনপিএইচ-এন২৭০

ম্যাট্রিক্স মুভির ফ্রাঞ্চাইজিস হিসেবে ২০০৩ সালে এই সেলফোন বাজারে আনে স্যামসাং। এতে ছিল ম্যাট্রিক্সের থিম ওয়ালপেপার, স্ক্রিনসেভার এবং রিংটোন। ১২৮ু১৬০ পিক্সেল এলসিডি ডিসপ্লের মোবাইলটির ব্যাটারি ছিল ১০০০ এমএএইচ।

সিমেন্স জেলিবিরি ৬

মূলত নারী ব্যবহারকারীদের জন্য সেলফোন বাজারে ছাড়ে সিমেন্স। ফ্লিপ মেকআপ মিররের মতো হুবহু দেখতে মোবাইলটি ২০০৩ সালের। ১০১ু৮০ পিক্সেলের এফএসটিএন ডিসপ্লের মোবাইলটিতে লি-আয়ন ব্যাটারি যুক্ত ছিল।

ভার্চু সিগনেচার কোবরা

নকিয়া এ ধরনের মোবাইলের উদ্ভাবক ছিল। এতে কয়েক ধরনের ম্যাটারিয়ালস ব্যবহার করা হয়েছিল। কোবরার ডিজাইনে তৈরি এই মোবাইলের দাম ধরা হয়েছিল ৩ লাখ ডলার, যা ২০০৬ সালে বাজারে অবমুক্ত করা হয়।

নকিয়া ৭৬০০

কান্না গড়িয়ে পড়ার অদ্ভুত এক বেঢপ আকৃতির এই মোবাইল ২০০৩ সালে বাজারে এনেছিল নোকিয়া। ১২৮ু১৬০ পিক্সেলের মোবাইলে ছিল ৮৫০ এম.এএইচ ব্যাটারি। এতে ছিল পলিফনিক রিংটোন আর জাফা গেমের ফিচার যুক্ত ছিল।

এলজি বিএল৪০ নিউ চকোলেট

চকোলেট প্রেমীদের চমকে দিতে এলজি এ ধরনের মোবাইল বাজারে নিয়ে আসে। ৪.০১ ইঞ্চির স্ক্রিন দেখতে হুবহু চকোলেট বারের মতো ছিল। এতে ছিল ১.১ জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ, ১০০০ এম.এএইচ ব্যাটারি এবং ৫ মেগাপিক্সেল অটোফোকাস ক্যামেরা।

নকিয়া ৭২৮০

ফ্যাশন সচেতনদের জন্য অদ্ভুত ডিজাইনের এই হ্যান্ডসেট বাজারে নামায় নোকিয়া। এতে কোনো নম্বর বাটন কিংবা টাচ স্ক্রিন কোনোটাই ছিল না। চাকার সাহায্যে সব কাজ করতে হতো এই মোবাইলে। এতে ছিল ভিজিএ ক্যামেরা, ৫০ এমবি ইন্টারনাল মেমোরি, স্টেরিও এফএম রেডিও এবং ৭০০ এমএএইচ ব্যাটারি।

স্যামসাং সেরেন

২০০৫ সালে অবমুক্ত হওয়া এই মোবাইলকে ধরা হয় সবচেয়ে পাগলাটে ডিজাইনের হ্যান্ডসেট। জুয়েলারির বক্সের ডিজাইনে তৈরি এই মোবাইলে ছিল সাইড-মাউন্টেড ক্যামেরা আর স্টু্ক্র ড্রাইভার দিয়ে সিম লাগানোর মতো পাগলাটে ফিচার। ৩২০ু২৪০ পিক্সেলের ডিসপ্লের মোবাইলটিতে ভিজিয়ে ক্যামেরা এবং ৮০০ এম.এএইচ ব্যাটারি সংযুক্ত ছিল।

তোশিবা জি৪৫০

থ্রি-ডিস্ক ডিজাইনের তোশিবার এই ফোনটি দেখতে অনেকটা ভয়ার্ত ছিল। ২০০৮ সালে অবমুক্ত হওয়া মোবাইলে ছিল ৯৬ু৩৯ পিক্সেলের মোনোক্রোস ডিসপ্লে। মাত্র ৫৭ গ্রাম ওজনের মোবাইলটি এইচএসপিএ মডেম ও ইউএসবি ডিভাইস হিসেবেও ব্যবহার করা যেত।
মন্তব্য
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved