শিরোনাম
 উত্তরে পানি কমছে, বাড়ছে মধ্যাঞ্চলে  রাষ্ট্রপতিকে জানানো প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব: ওবায়দুল কাদের  নেপথ্যের ষড়যন্ত্রকারী খুঁজতে কমিশন গঠনের চিন্তা চলছে: আইনমন্ত্রী  রায় নিয়ে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ নজিরবিহীন: ফখরুল
প্রিন্ট সংস্করণ, প্রকাশ : ২১ মার্চ ২০১৭

জমে উঠেছে বিতর্কের লড়াই

চলছে বিএফএফ-সমকাল পঞ্চম জাতীয় স্কুল বিজ্ঞান বিতর্ক প্রতিযোগিতা ২০১৭। ১৬ ও ১৮ মার্চ রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, নাটোর, পাবনা, সিরাজগঞ্জ, খুলনা, মেহেরপুর, চুয়াডাঙ্গা, কুষ্টিয়া ও নওগাঁয় অনুষ্ঠিত হয় জেলা পর্যায়ের বিতর্ক। সুহৃদ সমাবেশের আয়োজনে বিভিন্ন পর্যায়ে সহযোগিতায় রয়েছে_ পাওয়ার্ড বাই বসুন্ধরা খাতা, এনলাইটেন্ড বাই এসিআই পিওর সল্ট, প্রাইজ পার্টনার ড্যাফোডিল কম্পিউটারস লিমিটেড, নলেজ পার্টনার আগামী, গোল্ডেন পার্টনার বঙ্গজ বিস্কুট এবং ব্যবস্থাপনায় রয়েছে কিংবদন্তী মিডিয়া

রাজশাহী

সৌরভ হাবিব ও মুস্তাফিজ রনি

১৬ মার্চ সকালে রাজশাহী কলেজিয়েট স্কুলে অনুষ্ঠিত বিতর্ক প্রতিযোগিতার প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ফাইনালে রাজশাহী গভ. ল্যাবরেটরি হাইস্কুলকে পরাজিত করে জেলা চ্যাম্পিয়ন হয় রাজশাহী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়। সেরা বক্তা নির্বাচিত হয় মিফতাহুল জান্নাত রিফাত। অন্য স্কুলগুলো হলো-রাজশাহী কলেজিয়েট স্কুল, সরকারি পিএন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, সরকারি মাদ্রাসা স্কুল, শিক্ষা বোর্ড মডেল স্কুল, শিরোইল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়। প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন রাজশাহী কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক হবিবুর রহমান। সমকাল রাজশাহী ব্যুরোপ্রধান সৌরভ হাবিবের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন রাজশাহী কলেজিয়েট স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা নুরজাহান বেগম। বিতর্কের চূড়ান্ত পর্বে বিচারক ছিলেন অধ্যাপক শাহ আজম শান্তনু, পূর্ব কুমার রায় এবং রাজশাহী আবৃত্তি পরিষদের সহ-সভাপতি মুনিরা রহমান মিঠিসহ উপস্থিত অন্যরা হলেন সৈকত আবদুর রহিম, আবদুল হালিম, শাকিলা আখতার, তানজিমা আক্তার জিনাত, রুবাইয়া শাফরিন, উম্মে হাবিবা সুলতানা স্মৃতি, ফাহমিদা আফরোজ, সামসুদ্দীন ভুঁইয়া, মোর্শেদুল ইসলাম, জাকারিয়া জয়, তানভীর আহমেদ ও মাহমুদুল হাসান। সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন সুহৃদ মোবাসসের হোসেন, আবুদল কুদ্দুস, সোহরাব হোসেন, মনু মোহন বাপ্পা, শাহিন আলম, আশিক ইসলাম, মনিরুল সাগর ও তারেক মাহমুদ।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ

আমিনুল ইসলাম

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ছাত্রী মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয় চাঁপাইনবাবগঞ্জ হরিমোহন সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়। রানার্সআপ হয় চাঁপাইনবাবগঞ্জ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়। সুহৃদ সমাবেশের আহ্বায়ক মোহিত কুমার দাঁর সভাপতিত্বে প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন অধ্যাপক ড. মাজহারুল ইসলাম তরু। স্বাগত বক্তব্য রাখেন সমকালের জেলা প্রতিনিধি আমিনুল ইসলাম। অংশগ্রহণকারী অন্য স্কুলগুলো হলো গ্রিনভিউ উচ্চ বিদ্যালয়, হরিপুর ১নং উচ্চ বিদ্যালয়, টাউন হাইস্কুল, নয়াগোলা উচ্চ বিদ্যালয়, নামোশংকরবাটি উচ্চ বিদ্যালয় ও রাজারামপুর হামিদুল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয়।

উদ্বোধন করেন ড. মাজহারুল ইসলাম তরু। বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন, মোহিত কুমার দাঁ, শিক্ষক মোহাম্মদ শাহ আলম ও অধ্যাপক মো. ইব্রাহিম। অতিথি ছিলেন রাজারামপুর হামিদুল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শাহ আলম, গ্রিনভিউ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রোকসানা আহম্মেদ প্রমুখ। মডারেটর ছিলেন শিক্ষক সফিউল আজম ও মাহবুবুর রহমান। চ্যাম্পিয়ন দলের হাতে ক্রেস্ট, টি-শার্ট ও সনদপত্র তুলে দেন সুহৃদ সমাবেশ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখার আহ্বায়ক মোহিত কুমার দাঁসহ বিচারকরা।



নাটোর

নবীউর রহমান পিপলু

বৃহস্পতিবার নাটোরে নববিধান বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতায় কাদিরাবাদ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ চাম্পিয়ন এবং নাটোর সুগার মিলস উচ্চ বিদ্যালয় রানার্সআপ হওয়ার গৌরব অর্জন করে। শ্রেষ্ঠ বক্তা নির্বাচিত হয় কাদিরাবাদ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের নাফিসা তাসনিম বিনতে খলিল । অন্য স্কুলগুলো হলো-নাটোর সদর উপজেলার সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়, নববিধান বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, বনবেলঘরিয়া শহীদ রেজা-উন -নবী উচ্চ বিদ্যালয়, মহারাজা জেএন উচ্চ বিদ্যালয় অ্যান্ড কলেজ, বনলতা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও গ্রিন একাডেমি উচ্চ বিদ্যালয়।

জেলা শিক্ষা অফিসার মো. আমজাদ হোসেন যুক্তি-তর্কের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন। মডারেটরের দায়িত্ব পালন করেন নববিধান বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিমান গোবিন্দ সরকার। বিচারক ছিলেন প্রফেসর অলোক কুমার মৈত্র, সহকারী অধ্যাপক ওহিদুর রহমান, প্রভাষক বদরে মুনির সানি, মোস্তাফিজুর রহমান, আশরাফুল ইসাম, জেলা শিক্ষা অফিসের আবদুল লতিফ, সমকাল লালপুর প্রতিনিধি অধ্যাপক শহীদুল ইসলাম ও বড়াইগ্রাম প্রতিনিধি প্রভাষক আশরাফুল ইসলাম। সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন নববিধান বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক হাফিজা খানম জেসমিন। প্রতিযোগিতায় প্রধান অতিথি হিসেবে পুরস্কার বিতরণ করেন নাটোরের জেলা প্রশাসক শাহিনা খাতুন। বিশেষ অতিথি ছিলেন পৌর মেয়র উমা চৌধুরী জলি। বক্তব্য রাখেন সমকাল নাটোর প্রতিনিধি নবীউর রহমান পিপলু, বসুন্ধরা গ্রুপের বিভাগীয় বিক্রয় ব্যবস্থাপক এমএম নাজমুল হাসান, অ্যাডভোকেট মালেক শেখ, গোলাম মর্তুজা বাবু, হাসানুজ্জামান বাপ্পী, সুহৃদ সদস্য মৌমিতা ভট্টাচার্য প্রমুখ। উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক জালাল উদ্দিন, আল মামুন, মাহফুজুল আলম মণি, আখলাক হোসেন লাল, সাজেদুর রহমান সেলিম, গোলাম গাউস, কামাল হোসেন, মোহম্মদ মধু, ছানাউল্লাহ, নাজমা বেগম, শিক্ষক রঞ্জিত কুমার দেবনাথ, বিভাশ কুমার, সেলিনা বেগম, বিশ্বজিৎ তালুকদার, গোলাম হাক্কানী, রতন আলী, আল মামুন, কামরুজ্জামান প্রমুখ।

পাবনা

এবিএম ফজলুর রহমান

বৃহস্পতিবার পাবনা প্রেস ক্লাবের ভিআইপি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতায় পাবনা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় চ্যাম্পিয়ন এবং পাবনা কালেক্টরেট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ রানার্সআপ হয়। চ্যাম্পিয়ন দলের ফাহমিদা বিনতে সাত্তার এবং রানার্সআপ দলের সিরাজুম মনিরা যুগ্মভাবে শ্রেষ্ঠ বিতার্কিক নির্বাচিত হন। প্রধান অতিথি হিসেবে বিজয়ীদের মধ্যে ক্রেস্ট ও সনদপত্র বিতরণ করেন প্রফেসর ও সাংবাদিক শিবিজত নাগ।

এ ছাড়া পাবনা জিলা স্কুল, রাধানগর মজুমদার একাডেমি, শহীদ ফজলুল হক পৌর উচ্চ বিদ্যালয়, সেন্ট্রাল গার্লস হাইস্কুল, গোপাল চন্দ্র ইনস্টিটিউট (জিসিআই) এবং শহীদ এম. মনসুর আলী উচ্চ বিদ্যালয় এ প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়। সকালে শিবিজত নাগ প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন। সমকালের পাবনার স্টাফ রিপোর্টার এবিএম ফজলুর রহমানের সভাপতিত্বে সুহৃদ সমাবেশের তৌহিদুল ইসলামের সঞ্চালনায় উদ্বোধনী ও সনদ বিতরণ অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক আবদুল মতিন খান, আখিনুর ইসলাম রেমন, আখতারুজ্জামান আখতার, বসুন্ধরা পেপার মিলের বাংলা খাতার সহকারী সেলস ম্যানেজার খাইরুল ইসলাম, এসিআই সল্টের মোরশেদ আলী প্রমুখ। এ ছাড়া শিক্ষক আদ্যনাথ ঘোষ, সিরাজুম মনিরা বক্তব্য রাখেন। সাংবাদিক আবদুল মতিন খান, আখতারুজ্জামান আখতার, আহমেদ উল হক রানা বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন। সহযোগিতায় ছিলেন সুহৃদের মাহবুবা কাজল, ইমরান, খাদিজা, ফারিব, জ্যামি, মুক্তা, ফারুফ, ফরিদ,সাদ্দাম, মামুন, সজল, রনি, অনামিকা অনি ইলা, সুরাইয়া ইফফাত ইমু, মিথিলা ইরিন ঈশিতা, ফাইজ ও সালাহউদ্দিন আহমেদ।

সিরাজগঞ্জ

আমিনুল ইসলাম খান রানা

১৬ মার্চ সিরাজগঞ্জ কালেক্টরেট স্কুল অ্যান্ড কলেজ হলরুমে অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতায় প্রতিযোগিতায় সিরাজগঞ্জ উল্লাপাড়া মোমেনা আলী বিজ্ঞান স্কুল চ্যাম্পিয়ন এবং সবুজ কানন স্কুল অ্যান্ড কলেজ রানার্সআপ হয়। শ্রেষ্ঠ বক্তা হিসেবে নির্বাচিত হন উল্লাপাড়া মোমেনা আলী বিজ্ঞান স্কুলের তার্কিক প্রাপ্তি সাহা। অংশগ্রহণকারী অন্য স্কুলগলো হলো-কালেক্টরেট স্কুল অ্যান্ড কলেজ, পুলিশ লাইন্স স্কুল অ্যান্ড কলেজ, বিএল সরকারি স্কুল, বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও কওমি জুট মিলস হাই স্কুল। প্রতিযোগিতায় মডারেটর ছিলেন প্রফেসর এসএম আকতারুজ্জামান, বিচারক ছিলেন প্রকৌশলী আবু হেনা মো. মোস্তফা কামাল, সহকারী অধ্যাপক আতাউর রহমান খান, অ্যাডভোকেট নাছিম সরকার হাকিম, সাংবাদিক ফজল-এ-খোদা লিটন, কল্যাণ ভৌমিক এবং প্রভাষক আতিকুল ইসলাম বুলবুল। মওলানা আবু বকর সিদ্দীক, সাংবাদিক হিরক গুণ, স্বপন চন্দ্র দাস, দিলীপ গৌর, রিঙ্কু কুণ্ডু, সায়েম উদ্দিন, এসিআইর জোনাল সেলস ম্যানেজার (ব্র্যান্ডেড কমোডিটি) শেখ জিল্লুর রহমান, বসুন্ধরা পেপার মিলসের এরিয়া ম্যানেজার জসিম উদ্দিন, সিরাজগঞ্জের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রায়হান আলী প্রমুখ অতিথি ছিলেন। সাংবাদিক সুলতানা ইয়াসমিন মিলি অনুষ্ঠানটির সঞ্চালক এবং আমিনুল ইসলাম খান রানা সমন্বয়ক এবং সুব্রত কুমার ঘোষ তাপস ও ফটোগ্রাফার লুৎফর কবির সোহাগ সহ-সমন্বয়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। কালেক্টরেট স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ শীতল কুমার সরকারের সভাপতিত্বে পুরস্কার ও সনদ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক কামরুন নাহার সিদ্দীকা এবং বিশেষ অতিথি পুলিশ সুপার মিরাজ উদ্দিন আহম্মেদ, সিভিল সার্জন ডা. শেখ মো. মনজুর রহমান, সওজ নির্বাহী প্রকৌশলী আবু হেলা মোস্তফা কামাল, এলজিএডির নির্বাহী প্রকৌশলী রবিউল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

খুলনা

মামুন রেজা

খুলনা কালেক্টরেট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজে অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতায় খুলনা সরকারি করোনেশন মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় চ্যাম্পিয়ন ও খুলনা সরকারি মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় রানার্সআপ হয়। সেরা বিতার্কিক চ্যাম্পিয়ন দলের দলনেতা সাদিকা সাফনিন ঋদ্ধি। অংশ নেয়া অপর দলগুলো হলো_ খুলনা জিলা স্কুল, কেসিসি কলেজিয়েট গার্লস স্কুল, ইকবালনগর সরকারি বালিকা বিদ্যালয়, মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, সেন্ট জোসেফ উচ্চ বিদ্যালয় ও খুলনা পাবলিক কলেজ।

প্রধান অতিথি হিসেবে বিজয়ীদের পুরস্কার তুলে দেন যশোর শিক্ষা বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবুল বাশার মোল্লা। এ সময় বিশেষ অতিথি ছিলেন কালেক্টরেট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক সঞ্জীব কুমার ঘোষ।

প্রতিযোগিতায় বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন সহকারী অধ্যাপক শেখ দিদারুল আলম, প্রভাষক এমএম কবির আহমেদ, খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মনোজ কুমার মজুমদার, সহকারী শিক্ষক স্বর্ণকমল রায়, প্রভাষক সৌদ আল ফয়সাল রাজু, বিতার্কিক বায়েজিদুর রহমান খান ও আফসান আকতার অ্যানি। সহযোগিতায় ছিলেন বিতার্কিক তৈয়াবুর রহমান ও রিজভি। পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সমকালের খুলনা ব্যুরোপ্রধান মামুন রেজা। স্বাগত বক্তব্য রিপোর্টার হাসান হিমালয়। বসুন্ধরা গ্রুপের পক্ষে অনয় কুমার কুণ্ডু, সমকালের ফটোসাংবাদিক জাহিদুল ইসলাম, শরিফুল আলম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মেহেরপুর

ফারুক হোসেন

মেহেরপুর সরকারি মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় হলরুমে আয়োজিত প্রতিযোগিতায় মেহেরপুর সরকারি মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় চ্যাম্পিয়ন ও গাংনী উপজেলার জোড়পুকুরিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় রানার্সআপ হয়। সেরা বিতার্কিক হয় বিজিত দলের আয়নাতুন মার্জিয়া। বিতর্কে অংশ নেয়_ মেহেরপুর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, জিনিয়াস ল্যাবরেটরি স্কুল অ্যান্ড কলেজ, ভৈরব মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, ফ্রেন্ডস ফাউন্ডেশন মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং গাংনীর সন্ধানী স্কুল অ্যান্ড কলেজ ও পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়।

সুহৃদ সভাপতি সহকারী অধ্যাপক এনামুল আযীম ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ ফজলুল হক এবং জয়ীদের মধ্যে পুরস্কার ও সনদপত্র বিতরণ করেন সহকারী অধ্যাপক এনামূল আযীম ও সাজ্জাদুজ্জামান এবং প্রভাষক আলমগীর হোসেন।

সুহৃদ আবদুুল আলিমের সঞ্চালনায় আরও উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক বেন ইয়ামিন মুক্ত, রাশেদুজ্জামান, কৃষিবিদ আবদুুর রশিদ, সুহৃদ রামিজ আহসান, ওয়াজেদুল হক, সাবি্বর হোসেন সোহাগ, হামিদুর রহমান কাজল, খাইরুল ইসলাম প্রমুখ।

চুয়াডাঙ্গা

খাইরুল ইসলাম

চুয়াডাঙ্গা ভি.জে. সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতায় জেলার ৮টি বিদ্যালয় অংশ নেয়। এতে চুয়াডাঙ্গা ভি.জে. সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় চ্যাম্পিয়ন ও চুয়াডাঙ্গা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় রানার্সআপ হয়। শ্রেষ্ঠ বিতার্কিক নির্বাচিত হয় চ্যাম্পিয়ন দলের নেতা আসিফ আরাফাত। প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া অপর দলগুলো হলো_ এম.এ. বারী মাধ্যমিক বিদ্যালয়, জীবননগর থানা পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, শাপকলী আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়, চুয়াডাঙ্গা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়, সীমান্ত মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও সোহরাওয়ার্দী স্মরণী বিদ্যাপীঠ।

প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সমকাল সুহৃদ সমাবেশের চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সভাপতি শামিম হোসেন। প্রতিযোগিতার উদ্বোধন ও বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন ভি.জে. সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহফুজুল হোসেন উজ্জ্ব্বল। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চুয়াডাঙ্গা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. নূর হোসেন, কাজল মাহমুদ প্রমুখ।

বিচারক ছিলেন সোহেল আহমেদ, মাসুদ রানা, হেদায়েত উল্লাহ, ইব্রাহীম আলী। সমন্বয়কারীর দায়িত্বে ছিলেন সাংবাদিক খাইরুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বসুন্ধরা গ্রুপের আমির উল ইসলাম, সুহৃদ সমাবেশের মাহফুজ মামুন, অরনি, সুরাইয়া আক্তার প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন মেহেরাবি্বন সানভী।

কুষ্টিয়া

সাজ্জাদ রানা

কুষ্টিয়া জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে অনুষ্ঠিত বিতর্ক প্রতিযোগিতায় কুষ্টিয়া জিলা স্কুল চ্যাম্পিয়ন ও কুষ্টিয়া সরকারি বালিকা বিদ্যালয় রানার্সআপ হওয়ার গৌরব অর্জন করে। প্রতিযোগিতায় সেরা বিতার্কিক নির্বাচিত হয় চ্যাম্পিয়ন দলের দিদারুল হক। বিতর্ক প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া অপর ছয়টি দল হলো_ পুলিশ লাইন স্কুল অ্যান্ড কলেজ, প্রতীতি বিদ্যালয়, ষোলদাগ মাধ্যমিক বিদ্যালয়, চিথলিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কুমারখালী এমএন হাই স্কুল ও কুমারখালী পাইলট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়।

প্রধান অতিথি হিসেবে প্রতিযোগিতার উদ্বোধন ও পুরস্কার বিতরণ করেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক ড. সেলিম তোহা। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সাংবাদিক সৈয়দ নাজমুল ইমাম, জহরুল ইসলাম, তৌহিদী হাসান প্রমুখ। আরও উপস্থিত ছিলেন বসুন্ধরা পেপার লিমিটেডের রাজু আহমেদ ও কুষ্টিয়া অঞ্চলের বিএস সোহেল মাহমুদ।

বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রভাষক শাম্মী রহমান, শিক্ষক শফিকুল মাহমুদ ও সাংবাদিক আনিসুজ্জামান ডাবলু। মডারেটরের দায়িত্ব পালন করেন ডিএম ডিগ্রি কলেজের সহযোগী অধ্যাপক মো. জাহিদুজ্জামান।

অনুষ্ঠানের সমন্বয়ক ছিলেন সমকালের কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি সাজ্জাদ রানা। সহযোগিতা করেন সমকালের খোকসা প্রতিনিধি মুন্সী লিটন, সুহৃদ সদস্য ইমরান হোসেন পল্লব, পারভেজ রহমান, সুরাইয়া খাতুন এ্যানি প্রমুখ।

নওগাঁ

এমআর ইসলাম রতন

নওগাঁ কেডি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে আয়োজিত প্রতিযোগিতায় নওগাঁ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় চ্যাম্পিয়ন এবং নওগাঁ জিলা স্কুল রানার্সআপ হয়। শ্রেষ্ঠ বক্তা নির্বাচিত হয় চ্যাম্পিয়ন দলের নেতা মার্জিয়া বিনতে বারি। প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া অপর দলগুলো হলো_ নওগাঁ কেডি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, পিএম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, জনকল্যাণ মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, বাচারীগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয় ও নামাজগড় গাউসুল আজম কামিল মাদ্রাসা।

প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন শিক্ষাবিদ এসএম আবু জাফর। প্রতিযোগিতায় সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন সুহৃদ সমাবেশ নওগাঁ জেলা শাখার সদস্য মাঈন আল মোবাস্সির ও সাবি্বর আহমেদ মারুফ। বিচারক ছিলেন নওগাঁ আস্তান মোল্লা কলেজের পরিসখ্যান বিভাগের প্রভাষক মোতাহার হোসেন, প্রভাষক এসমএম মোস্তাক আহমেদ, রানীনগর মহিলা কলেজের প্রভাষক বেলায়েত হোসেন, বাংলাদেশ ডিবেট ফেডারেশনের উপদেষ্টা খন্দকার মোনাসিব ফয়সাল, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রুপ অব লিবারেল ডিবেটরস-গোল্ডের সহসভাপতি সৈকত আব্দুর রহিম, রাজশাহীর স্টার স্টুডেন্টস ডিবেটিং ক্লাবের সহসভাপতি কৌশিক আহমেদ খান, নওগাঁ ড্যাফোডিলস ডিবেটরস ফোরামের পরিচালক মো. রাশিদ আঞ্জুম তন্ময় এবং একই প্রতিষ্ঠানের সদস্য এসএম আলভি সালমান ও জঈফা আখতার জুহি।

প্রতিযোগিতার সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন নওগাঁ সরকারি ডিগ্রি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. শরিফুল ইসলাম খান। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন সুহৃদ সমাবেশ নওগাঁ শাখার সভাপতি আতাউর রহমান খোকা। আরও বক্তব্য রাখেন সমকালের নাটোর জেলা প্রতিনিধি এমআর ইসলাম রতন, বসুন্ধরা গ্রুপের বিক্রয় প্রতিনিধি আনোয়ার হোসেন, এসিআইর জোনাল সেলস অফিসার শেখ জিল্লুর রহমান, সাংবাদিক হারুন অর রশিদ চৌধুরী রানা, সাজেদুর রহমান সাজু, নাজমুল হুদা, বাবুল আখতার রানা প্রমুখ। প্রতিযোগিতায় সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন সুহৃদ সদস্য হারুন অর রশিদ, তাবিব হাসান, তারিক আনাম, বায়েজিদ হোসেন, জুবায়ের নাবিল, তামান্না মার্জা, ময়ূরী আকতার, নূর-ই জান্নাত রিফা ও সালমান নিলয়। হ
মন্তব্য
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved