শিরোনাম
 ভাস্কর্য সরানোর বিক্ষোভে টিয়ার শেল, আটক ৪  বাসের ধাক্কায় জাবির দুই শিক্ষার্থী নিহত  খুলনায় বিএনপি নেতা হত্যার প্রতিবাদে শনিবার হরতালের ডাক   সরানো হলো সুপ্রিম কোর্টের ভাস্কর্য
প্রিন্ট সংস্করণ, প্রকাশ : ১৯ মার্চ ২০১৭, ০২:৫১:৩৮

ট্যাটুতেই চলবে স্মার্টফোন

সমকাল ডেস্ক
ট্যাটুর (উল্কি) ছোঁয়ায় এবার চলবে স্মার্টফোনও। ফোন করতে পারবেন। গেমে মজে থাকতে পারবেন। মিডিয়া প্লেয়ার চালিয়ে শুনতে পারবেন গানও। এ যেন রথ দেখা, সঙ্গে কলাও বেচা। অর্থাৎ নিজেকে সুন্দর করে তোলার পাশাপাশি ট্যাটুকে কাজে লাগানো যাবে নিজের প্রয়োজনেও।

এই উল্কির নাম স্কিনমার্কস। এক ধরনের আলট্রা সরু ইলেকট্রনিক ট্যাটু। কারও শরীরে জন্মগত দাগ বা ছোপ থাকলে সে জায়গাগুলোকেও এ ধরনের ট্যাটুতে পরিবর্তন করা যায়। শরীরের যে কোনো জায়গায় করা যায় এই ট্যাটু।

জার্মানির সারল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল বিজ্ঞানী স্কিনমার্কস ট্যাটু তৈরি করেছেন। এ প্রকল্পে গুগলের সহযোগিতা

রয়েছে বলে জানা গেছে। বিজ্ঞানীরা লক্ষ্য করেছেন, মানব শরীরে বিশেষ কয়েকটি 'ল্যান্ডমার্ক' রয়েছে, যেগুলো হাড়ের গঠনগত কারণে তৈরি হয়েছে। যেমন হাত মুঠো করলে যে উঁচু চারটি গাঁট পাওয়া যায়, সেসব জায়গায় স্কিনমার্কস করা যেতে পারে। আঙুলের ডগায়ও এ ধরনের ট্যাটু করা যাবে। তাতে স্মার্টফোন চালাতে সুবিধা হবে বলে জানান বিজ্ঞানীরা।

এই স্কিনমার্কসগুলো হলো চুল থেকেও সূক্ষ্মতম তার এবং ইলেক্ট্রোডসে (বিদ্যুৎবাহক পদার্থ, যার মধ্যে বিদ্যুৎ যাতায়াত করতে পারে) ছাপানো এক ধরনের কাগজ, যা জলছবির মতো গায়ে লাগিয়ে দেওয়া হয়। বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, স্কিনমার্কস দিয়ে কাউকে ফোন করা কিংবা মোবাইলের সাউন্ড কমানো-বাড়ানো, এমনকি মিডিয়া পেল্গয়ার চালিয়ে গানও শুনতে পারা যাবে। নানা আইকনের মতো দেখতে স্কিনমার্কসে আলোও জ্বলবে।

কারনেগ মেলন বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ক্রিস হ্যারি এ প্রসঙ্গে মজা করেই বলেছেন, '২০৫০ সালের মধ্যে দেখবেন সব পার্লারেই এ ধরনের ট্যাটু ব্যবহার করা হচ্ছে। আর তারা তখন চালাচ্ছেন আইফোন ২২।' আনন্দবাজার পত্রিকা।
মন্তব্য
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved