শিরোনাম
 ভাস্কর্য সরানোর বিক্ষোভে টিয়ার শেল, আটক ৪  বাসের ধাক্কায় জাবির দুই শিক্ষার্থী নিহত  খুলনায় বিএনপি নেতা হত্যার প্রতিবাদে শনিবার হরতালের ডাক   সরানো হলো সুপ্রিম কোর্টের ভাস্কর্য
প্রকাশ : ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, ২২:১০:৫৪ | আপডেট : ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, ২৩:১৩:০০

বাবুল আক্তারের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি
সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের বিরুদ্ধে এসআই আকরাম হত্যার অভিযোগ তুলেছেন নিহতের পাঁচ বোন। শুক্রবার ঝিনাইদহ প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে তারা এ অভিযোগ করেন। এতে লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান আকরামের সেজো বোন জান্নাত আরা পারভীন রিনি। তিনি ভাই হত্যার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার দাবি করেন।বাবুল আক্তারের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ
বাবুল আক্তার -ফাইল ছবি
 
লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, খুলনায় বাবুল আক্তারের বাবা পুলিশে ও আকরামের স্ত্রী বন্নীর বাবা বিআরডিবিতে চাকরি করতেন। তারা থাকতেন পাশাপাশি বাসায়। সেই সুবাদে বাবুল-বন্নীর মধ্যে সম্পর্ক তৈরি হয়; কিন্তু ২০০৫ সালের ১৩ জানুয়ারি এসআই আকরামের সঙ্গে বন্নীর বিয়ে হয়। পারিবারিকভাবে মাহমুদা খানম মিতুকে বিয়ে করেন বাবুল। বিয়ের পরও বাবুলের সঙ্গে বন্নীর যোগাযোগ ছিল। এসআই আকরাম মিশনে থাকা অবস্থায় তাদের প্রায়ই কথা হতো। রিনির অভিযোগ, ২০১৪ সালের ২৮ ডিসেম্বর তার ভাই আকরামকে যমুনা সেতু হয়ে ঢাকা আসার পরামর্শ দিয়েছিল বন্নী। সে বাবুল আক্তারের সঙ্গে পরিকল্পনা করে হত্যার ষড়যন্ত্র করে। ঢাকায় আসার পথে হত্যার উদ্দেশে সন্ত্রাসীরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে তার মাথার পেছনে গুরুতর জখম করে। ঝিনাইদহের শৈলকূপা উপজেলার বড়দাহ নামক স্থানে মহাসড়কে মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে উদ্ধার করা হয়। আকরামের শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে ফরিদপুর ও পরে ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি করা হয়।
 
তিনি আরও বলেন, আইসিইউতে চিকিৎসাধীন আকরামের অবস্থার উন্নতি হচ্ছিল। কিন্তু স্যুপের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে তাকে খাওয়ায় বন্নী। ২০১৫ সালের ১৩ জানুয়ারি আকরামের মৃত্যু হয়। ময়নাতদন্ত ছাড়াই বন্নী লাশ গ্রহণ করে। পুলিশ ঘটনাটিকে সড়ক দুর্ঘটনা বলে চালানোর চেষ্টা করে।
 
সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, চিকিৎসকরা বলেছিলেন, আকরামের মাথায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তখনই সন্দেহ হয় এটি হত্যা। কিন্তু ওই ঘটনায় থানায় গেলেও পুলিশ মামলা নেয়নি। পরে ১৫ জানুয়ারি আদালতে মামলা করা হয়। পরে লাশ পুনরায় তুলে ময়নাতদন্ত করা হয়। সেই প্রতিবেদন প্রভাবিত করে বাবুল আক্তার।
 
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত এসআই আকরামের অন্য চার বোন হলেন রেহানা আলম গিনি, ফেরদৌস আরা চিনি, শাহনাজ পারভীন রিপা ও শামীমা নাসরীন মুক্তি।
আরও পড়ুন
মন্তব্য
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved