শিরোনাম
 সিরাজগঞ্জে বাস- মাইক্রো সংঘর্ষে নিহত ৪  নতুন ভ্যাট আইন ২ বছর স্থগিত
প্রিন্ট সংস্করণ, প্রকাশ : ২৯ অক্টোবর ২০১৬

মানুষের জন্য স্বপ্ন

মোস্তাফিজুর রহমান
ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জের জাটিয়া ইউনিয়নের একটি প্রত্যন্ত গ্রাম ফানুর। গ্রামটি থেকে উপজেলা সদর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দূরত্ব ১২ কিলোমিটার। স্বাস্থ্যসেবা পাওয়ার জন্য পাশাপাশি যে কমিউনিটি ক্লিনিকটি রয়েছে তার দূরত্বও প্রায় ৫ কিলোমিটার। কমিউনিটি ক্লিনিকে তেমন সেবা মেলে না। তাই গ্রামের মানুষকে ছুটতে হয় ১২ কিলোমিটার দূরের উপজেলা সদর হাসপাতালে। অর্থাভাবে অনেক দরিদ্র মানুষের পক্ষে উপজেলা সদর হাসপাতালে যাওয়া সম্ভব হয় না। ওই অবস্থায় গ্রামের দরিদ্র মানুষের দিন কাটে বিনা চিকিৎসায়। এমন অবস্থায় গ্রামের মানুষের চিকিৎসাসেবার জন্য ২০১০ সালে গ্রামটিতে ব্যক্তি উদ্যোগে বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রম শুরু করেন ড. মতিউর রহমান। প্রতি শুক্র ও শনিবার দু'জন চিকিৎসক নিয়মিত গ্রামের মানুষদের সেবা দিয়ে আসছেন অস্থায়ীভাবে। গত ২০ ফেব্রুয়ারি বিনামূল্যের অস্থায়ী স্বাস্থ্যকেন্দ্রটিতে ঘুরতে আসেন কানাডার হেল্প ইন্টারন্যাশনালের প্রধান নির্বাহী রোডনি সিডলক্সিসহ কানাডা প্রবাসী কয়েকজন বাংলাদেশি।

ফানুর গ্রামের ড. মতিউর রহমান ন্যাশনাল ফুড সেফটি ল্যাবরেটরিতে চাকরি করেন। তিনি বলেন, গ্রামের মানুষের চিকিৎসাসেবার জন্য হাসপাতালে যেতে অনেক দুর্ভোগ পোহাতে হয়। দূরের স্বাস্থ্যকেন্দ্রে যাওয়ার সামর্থ্য না থাকায় বিনা চিকিৎসায় মারা যায় অনেকে। গ্রামের দরিদ্র মানুষ অর্থের অভাবে পায় না সঠিক স্বাস্থ্যসেবা। ওই অবস্থায় গ্রামের মানুষের দুরবস্থা দেখে ব্যক্তি উদ্যোগে তিনি ২০১০ সালে অস্থায়ী স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রম চালু করেন। কানাডা প্রবাসী কয়েকজনের সঙ্গে যোগাযোগ করে নিজ বাড়িতে ২০১০ সাল থেকে সপ্তাহে দু'দিন বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা কার্যক্রম শুরু করেন। তিনি তার নানি মোসলেমা খাতুনের নামে মোসলেমা খাতুন ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট গঠন করে এই স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন। স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রমটি চালানোর জন্য কানাডা প্রবাসী ও দেশীয় ছয়জন ব্যক্তি মিলে একটি ট্রাস্টি বোর্ড গঠন করেন। সবার কাছ থেকে সহযোগিতা নিয়ে গ্রামের মানুষকে বিনামূল্যে সঠিক স্বাস্থ্যসেবা দেওয়ার জন্য মোসলেমা খাতুন স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি চালু হয়েছে। ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান কানাডা প্রবাসী চিকিৎসক এবি মহিউদ্দিন আহাম্মদ বলেন, দূর দেশে পড়ে থাকলেও দেশের মানুষের জন্য কিছু করার আকাঙ্ক্ষা থেকেই স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি যেন চালু থাকে, সেজন্য সামান্য সহযোগিতা করি।

২০১০ সাল থেকে গ্রামের সাধারণ মানুষকে প্রতি শুক্র ও শনিবার ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সাবেক আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. গোলাম মোস্তফা ও ডা. নাহিদ আহম্মেদ বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা দিয়ে যাচ্ছেন ওই গ্রামে। স্থানীয় এলাকাবাসী জানান, সপ্তাহে দু'দিন চিকিৎসক এসে তাদেরকে বিনা পয়সায় প্রেসক্রিপশন করে দিচ্ছেন। আর গ্রামের মানুষ স্বাস্থ্যকেন্দ্রে সঠিক চিকিৎসাসেবা পাচ্ছেন।

২০ ফেব্রুয়ারি বিকেলে বিনামূল্যের স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি পরিদর্শন করতে আসেন কানাডার হেল্প ইন্টারন্যাশনালের প্রধান নির্বাহী রোডনি সিডলক্সি। ওই সময় তিনি জমি পেলে এখানে স্থায়ী স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রম চালুর ব্যবস্থা করারও আশ্বাস দেন। ওই আশ্বাসে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান স্বাস্থ্যকেন্দ্রের জন্য জমি দেওয়ার ঘোষণা দেন। ওই গ্রামের হাসিদ মিয়া বলেন, দূরের হাসপাতালে রোগী নিয়ে যেতে যেতে অনেকের প্রাণ যায়। তাদের গ্রামে স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি চালু হলে গ্রামের মানুষ অনেক উপকৃত হবে।

স্বাস্থ্যকেন্দ্রটির উদ্যোক্তা ড. মতিউর রহমান বলেন, কানাডার হেল্প ইন্টারন্যাশনাল সংগঠনটি বিশ্বের বিভিন্ন দরিদ্র দেশে সহায়তা করে। আর প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহী তাদের এলাকায় এসে পুলকিত। আশ্বাস দিয়েছেন অস্থায়ী এ স্বাস্থ্যকেন্দ্রটিকে পূর্ণাঙ্গভাবে চালু করার। এতে এলাকার সাধারণ মানুষ সঠিক স্বাস্থ্যসেবা পাবেন।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. হাবিবুর রহমান বলেন, বিদেশি মানুষের সহায়তায় গ্রামের মানুষ স্বাস্থ্যসেবা পাবেন_ এটি খুব ভালো দিক। হ
মন্তব্য
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ বেআইনি
powered by :
Copyright © 2017. All rights reserved